সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন

১৫ বছরে বদলে যাওয়া উপজেলার নাম গোবিন্দগঞ্জ

১৫ বছরে বদলে যাওয়া উপজেলার নাম গোবিন্দগঞ্জ

স্টাফ রিপোর্টারঃ গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভা একটি জনবহুল এবং ব্যবসা প্রধান এলাকা। এটি উত্তরাঞ্চলের বৃহত্তর রংপুর দিনাজপুর সহ আটটি জেলার প্রবেশদ্বার। গোবিন্দগঞ্জের ভৌগলিক ও ব্যবসায়িক গুরুত্ব অনুধাবন করে সরকার ১৯৯৮ইং সালের ২৫ আগষ্ট এই পল্লী এলাকাকে শহর এলাকা ঘোষনা পূবক পৌরসভা প্রতিষ্ঠা করেন।
প্রাচীনকালে করোতয়া নদীর তীরে যে বানিজ্যিক কেন্দ্র গড়ে ওঠে তা মোঘল আমলে গঞ্জ গঞ্জ হিসাবে পরিচিতি লাভ করে। আর এই গঞ্জ শব্দটিকে উত্তর জনপদের পৌন্ড্রবধন রাজ্যের শেষ রাজা গোবিন্দ নামের সাথে যুক্ত করে এই এলাকার নামকরণ করা হয়। সেই মোঘল আমল বিদায় হয়েছে অনেক আগেই, সাথে বিদায় হয়েছিল এই এলাকার উন্নতি। যা ২০০৯ এর পরে আবার ফিরে আসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে। আজ এই এলাকা উন্নয়নের পুণ্যভূমি। একের পর এক চোখ ধাঁধানো উন্নয়ন যে কাউকেই বিস্ময় করতে বাধ্য।
স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য আনতে যাচ্ছে গোবিন্দগঞ্জ নির্মাণাধীন রয়েছে ৫০ শয্যা হতে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। উন্নীতকরণ হচ্ছে বগুড়া -রংপুর মহাসড়ক ৪ লেন কাজের গোবিন্দগঞ্জ অংশ। পূর্ণতা পেয়েছে গাইবান্ধা -গোবিন্দগঞ্জ ভায়া নাকাইহাট ২৯.৫০ কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরন। ধর্মীয় খাতে যোগ হয়েছে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা মডেল মসজিদ এর মত স্থাপনা। স্থানীয় জনগণের দীর্ঘদিনের দাবীর প্রেক্ষিতে জয়পুরহাট -রাজাবিরাট- গোবিন্দগঞ্জ ১১.৬০ কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরণ হয়েছে। গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকলের মালিকানাধীন ৪৫০ একর জমিতে রংপুর ইপিজেড নির্মানের জন্য সরকারিভাবে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে। দেশের দশম ইপিজেড হিসাবে শীঘ্রই এর কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে। রংপুর ইপিজেড স্থাপনের কার্যক্রম শুরু হওয়ায় খুশি স্থানীয়রা। উত্তর জনপদের লাখ লাখ প্রান্তিক মানুষের কাছে এ জেনো কর্মস্থানের এক নতুন সপ্নের ঠিকানা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে এভাবেই গোবিন্দগঞ্জ পৌঁছে যাচ্ছে উন্নয়নের শেখরে। আর স্থানিয়দের চাওয়া, উন্নয়নের এই ধারা অব্যহত রাখতে আবার ফিরে আসুক আওয়ামীলীগ সরকার।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com