মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
সাদুল্লাপুরে ঝুকি নিয়ে নৌকা ও বাঁশের সাঁকোয় নদী পারাপার গাইবান্ধায় যুগান্তরের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন গোবিন্দগঞ্জ রংপুর ইপিজেড বাস্তবায়নের দাবীতে মানববন্ধন সাঘাটায় ২০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক মাদক কারবারি আটক গাইবান্ধায় জাতীয় ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সমিতির মিলনমেলা রোগ পরীক্ষা নামে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে হেলথ প্লাস ডায়াগনস্টিক সেন্টার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় এসএসসির প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ২ শিক্ষক আটক সুন্দরগঞ্জে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা প্রেমিকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধা পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযানঃ গ্রেফতার ৩ পলাশবাড়ীতে মাদকসহ ৩ কারবারি গ্রেফতার

গাইবান্ধার ৫ আসনে জামানত হারালেন ২৪ প্রার্থী

গাইবান্ধার ৫ আসনে জামানত হারালেন ২৪ প্রার্থী

স্টাফ রিপোর্টারঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধার পাঁচ আসনে ৩৫ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এর মধ্যে ২৪ প্রার্থী তাদের জামানত হারান। গতকাল সোমবার ৮ জানুয়ারি গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়।
ভোট কাস্টিংয়ের আট ভাগের একভাগ ভোট না পেলে ওই প্রার্থী জামানত বাজেয়াপ্ত হয়। সে হিসাবে গাইবান্ধায় এ নির্বাচনে পরাজিত হয়ে কমপক্ষে ২৪ প্রার্থী তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।
গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনটিতে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের মশাল প্রতীকে গোলাম আহসান হাবীব মাসুদ ভোট পেয়েছেন দুই হাজার ৪৩১, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির আইরিন আক্তার হাতঘড়ি প্রতীকে ১৯২ ভোট, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোটের খন্দকার রবিউল ইসলাম ছড়ি প্রতীকে ১২০ ভোট, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মর্জিনা খান আম প্রতীকে ২৭০ ভোট, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের আবু বক্কর সিদ্দিক গামছা প্রতীকে ৭৬৪ ভোট, বাংলাদেশ কংগ্রেসের ফকরুল হাসান ডাব প্রতীকে ৮২৪ ভোট, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের ওমর ফারুক সিজার টেলিভিশন প্রতীকে ৬৬ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ট্রাক প্রতীকে জয়নাল আবেদীন পান ৩২৩ ভোট। তারা সবাই জামানত হারিয়েছেন।
গাইবান্ধা-২ (সদর) আসনে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির জিয়া জামান খাঁন আম প্রতীকে পেয়েছেন ১৯৪ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুমা আকতার ঈগল প্রতীকে ১৬৯ ভোট ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের গোলাম মারুফ মনা মশাল প্রতীকে ৫১০ ভোট পেয়ে জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।
গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে কেটলি প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাফর মোঃ জাহিদ তিনি পেয়েছেন ৫৪৯ ভোট। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের মশাল প্রতীকে এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি পান সাত হাজার ১৬৭ ভোট। জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকে মইনুর রাব্বী চৌধুরী পেয়েছেন সাত হাজার ৪৬৫ ভোট। ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আম প্রতীকে জাহাঙ্গীর আলম পেয়েছেন ১৫০ ভোট। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের নোঙ্গর প্রতীকে মনজুরুল হক পেয়েছেন ২২৫ ভোট। বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির হাতঘড়ি প্রতীকে মাহামুদুল হক পেয়েছেন দুই হাজার ১৮৩ ভোট। কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের গামছা প্রতীকে মোস্তফা মনিরুজ্জামান পেয়েছেন ১৮৭ ভোট ও আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাহারিয়া খাঁন বিপ্লব- ট্রাক প্রতীকে চার হাজার ১৯২ ভোট পান। তারা সবাই জামানত হারিয়েছেন।
গাইবান্ধা-৪ (গোবিন্দগঞ্জ) আসনটিতে জাতীয় পার্টির কাজী মোঃ মশিউর রহমান চার হাজার ৩০৮ ভোট পেয়ে জামানত হারান।
গাইবান্ধা-৫ (ফুলছড়ি-সাঘাটা) আসনে জাতীয় পার্টির আতাউর রহমান লাঙ্গল প্রতীকে পেয়েছেন ৭১১ ভোট। বিকল্প ধারা বাংলাদেশের জাহাঙ্গীর আলম কুলা প্রতীকে ১০৪ ভোট পান। ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ফারুক মিয়া আম প্রতীকে ১৪৬ ভোট পেয়েছেন। স্বতন্ত্র শামসুল আজাদ শীতল ঈগল প্রতীকে ১১০ ভোট পেয়েছেন। ভোট কাস্টিংয়ের আট ভাগের একভাগ ভোট না পেয়ে তারা সবাই জামানত হারান।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com