রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন

সুন্দরগঞ্জে বালু উত্তোলন করায় অব্যাহত হুমকির মুখে জনপদ

সুন্দরগঞ্জে বালু উত্তোলন করায় অব্যাহত হুমকির মুখে জনপদ

সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ঠেকানো যাচ্ছে না অসাধু চক্রের অবৈধভাবে বালু উত্তোলন। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার যত্রতত্র অব্যাহত ভাবে বালু উত্তোলন হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে রাস্তাঘাট, বসতবাড়ি, আবাদি জমি ও জনপদকে। উপজেলা প্রশাসন দিনরাত পরিশ্রম করে দমাতে পারছে না বালু উত্তোলন। গত তিন দিনের
ব্যবধানে উপজেলার বামনডাঙ্গা, ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোহাম্মদ আল মারুফ ৩টি পাম্পসহ মেশিন, ২ লাখ টাকার পাইপ জব্দ এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে। গত এক বছরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রায় ৬০০ পাস্পসহ মেশিন এবং পাইপ জব্দ করা হয়। যা স্তুব আকারে জমা রাখা হয়েছে উপজেলা ভুমি অফিসের সামনে। প্রশাসনের দাবি জব্দকৃত পাস্পসহ মেশিন নিলামে দেয়া হয়নি। যাতে করে আসাধু বালু ব্যবসায়ীরা আবার তা ক্রয় করে নিয়ে গিয়ে বালু উত্তোলন করবে। অথচ প্রতিনিয়ত নতুন পাস্পসহ মেশিন কিনে নিয়ে এসে বালু উত্তোলন করছেন ব্যবসায়ীরা। ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের বালু ব্যবসায়ী সাজু মিয়া জানান, বালুর ব্যবসায় অনেক লাভ। প্রশাসন জরিমানা করার পর বালুর ব্যবসা করতে চাই না। গুটি কয়েক মিডিয়ার ব্যক্তিসহ সরকারি দপ্তরের কিছু লোকের উৎসাহে বালু উত্তোলন করে থাকি। তাদেরকে মাসহারা প্রদানের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করা হয়। তাদের নির্দেশনা মোতাবেক বালু উত্তোলন করে থাকি। ইদানিং মাসহারা নেয়া ব্যক্তিগণ আমাদের সাথে বেইমানি করছে। তিনি বলেন টাকা নেয়ার পর প্রশাসনকে খবর দিয়ে আমাদের জরিমানা করাচ্ছে। সাজু আরও বলেন আর আমি বালুর ব্যবসা করব না। তবে ইউএনওকে বিষয়গুলি জানাব। ধোপাডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান জানান, তার ইউনিয়নে সবচেয়ে বেশি বালু ব্যবসায়ী। তিনি বলেন তার গোটা ইউনিয়নের মাটির নিচের বালু নেই বললে চলে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ হলে মহামারি দেখা দিতে পারে। আওয়ামীলীগ নেতা ও ঠিকাদার জাহাঙ্গীর আলম জানান রাস্তাঘাটসহ অবকাঠামো নির্মাণে বালুর প্রয়োজন। সে কারনে উপজেলা কমপক্ষে ৪ হতে ৫টি বালু মহল ঘোষণা করা একান্ত প্রয়োজন। তিনি মনে করেন বালু মহল ঘোষণা হলে বালু উত্তোলন বন্ধ হবে। উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোহাম্মদ আল মারুফ জানান, সরকারি বিধি মেনে বালু উত্তোলন করতে হবে। মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করলে যে কোন মহুর্ত্বে বাস্তাঘাট, বসতবাড়ি এবং জনপদের মারাত্বক ক্ষতি হতে পারে। ক্ষুদ্রতম স্বার্থের চেয়ে বৃহত্তম স্বার্থ রক্ষা করা আমাদের সকলের নৈতিক দায়িত্ব। বালু মহলের বিষয়টি সরকারের উপর মহলের অনুমতি ছাড়া সম্ভব নয়।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com