বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৪:২৭ অপরাহ্ন

সুন্দরগঞ্জে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণেরও বেশি

সুন্দরগঞ্জে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণেরও বেশি

সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হাট-বাজার গুলোতে দ্বিগুণেরও বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। এতে ক্রেতাদের নাভির্শ^াস উঠছে।
হাট-বাজার গুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১০ দিন আগেও ৪০/৪৫ টাকা দরে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়। কিন্তু হঠাৎ করে দাম বেড়ে যাওয়ায় এখন দ্বিগুণেরও বেশি দামে ক্রেতারা পেঁয়াজ ক্রয় করছে। পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সিন্ডিকেট চক্র অধিক লাভের আশায় দাম বাড়িয়ে দিয়েছে বলে ভুক্ত ভোগীদের ধারণা। পেঁয়াজ মজুদ রাখার কোনো ব্যবস্থা নেই বলে করে খুচরা ব্যবসায়ীদের দাবী এগুলো বড় ব্যবসায়ীদের কারসাজী। তা না হলে ৪০/৪৫ টাকার পেঁয়াজ এখন ৯০/১১০ টাকা দরে বিক্রি করতে হতো না। ব্যবসায়ীরা আরও বলেন আমরা পাইকারী দরে পেঁয়াজ কিনে খুচরা বিক্রি করি যৎ সামান্য লাভে। সুন্দরগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী আব্দুল লতিব জানান পেঁয়াজের দাম বাড়াতে আমরা লাভের মুখ কম দেখছি। কারণ দাম কম থাকায় প্রতিদিন ২/৩ মণ করে পেঁয়াজ বিক্রি করেছি। আর এখন দাম বাড়ায় সারাদিনে ১৫/২০ কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয় না। বিশেষ করে নি¤œ আয়ের ক্রেতারা পেঁয়াজ কেনা ছেড়ে দেয়ার মত অবস্থায় রয়েছে। ক্রেতা এনামুল হক জানান, আগে এক কেজি পেঁয়াজ কিনেছিলাম ৪/৫ দিনের জন্য। এখন সে জায়গায় কিনছি ২০০/৩০০ গ্রাম করে। ক্রেতা এনামুল আরো জানান, পেঁয়াজ একটা গুরুত্বপূর্ণ মসলা। এ মসলা ছাড়া রান্না সুস্বাদু হয় না। নগড় কাঠগড়া হাটের পাইকারী পেঁয়াজ ব্যবসায়ী বাদশা প্রামাণিক জানান, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানী বন্ধ হওয়ায় পাবনা, কুষ্টিয়া ও ফরিদপুর থেকে বেশি দামে পেঁয়াজ কেনার কারণে বেশি দামে বিক্রি করছি। হাট-বাজার গুলোতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও প্রশাসনের কোন নজরদারী নেই। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোলেমান আলী জানান, দুইদিন থেকে হাট-বাজার গুলোতে ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলা হচ্ছে এবং তারা যেন বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করতে না পারে সেজন্য নজরদারী বাড়ানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com