মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ন

সুন্দরগঞ্জে গৃহবধূকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা,স্বামী গ্রেফতার

সুন্দরগঞ্জে গৃহবধূকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা,স্বামী গ্রেফতার

সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুন্দরগঞ্জে রোজিনা বেগম (২৬) নামে এক গৃহবধূকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী। হত্যাকান্ডের পর ঘটনাস্থল থেকে পলাতক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের সাতগিরি গ্রামের পাইটকাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্বামী কর্তৃক নৃশংস খুনের শিকার গৃহবধূ একই ইউনিয়নের রামধন (মওয়ামারী) গ্রামের ওয়ারেছ আলীর মেয়ে। খুনি স্বামী ছামিউল সাতগিরি গ্রামের রহমান মিয়ার ছেলে।
স্থানীয়রা জানায়, পারিবারিক দুরাবস্থার কারণে ঢাকায় পোশাক কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতেন গৃহবধূ রোজিনা। আর স্বামী ছামিউল সেখানে কাঠমিস্ত্রীর কাজ করতেন। তখন থেকেই দুজনের মধ্যে সন্দেহের জেরে দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল। মাস খানিক আগে রাগ করে ঢাকা থেকে রোজিনা বেগম তার বাবার বাড়িতে চলে যান। পরে স্বামী ছামিউল স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সহায়তায় সালিশের মাধ্যমে তার বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে যান। পারিবারিক বিষয়ে গত শুক্রবার সকাল থেকেই দুজনের মধ্যে ঝগড়াঝাঁটি চলছিল। এরপর সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের বিলে মাছ মারার কথা বলে ওই স্ত্রীকে বাহিরে নিয়ে যায় তার স্বামী। বিলের মাঝে নিয়ে গিয়ে কুড়াল দিয়ে গলায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে হত্যা করে। এসময় গৃহবধূর চিৎকারে তার শ্বশুর-শ্বাশুড়ি এগিয়ে এলে তাদেরকে ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায় ছামিউল। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন। পরে পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ছামিউলকে গ্রেফতার করেন। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহিল জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহত গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত ছামিউলকে।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com