মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩২ অপরাহ্ন

সাদুল্লাপুর বাজারে শীতের সবজিঃ দাম উর্ধ্বমুখী

সাদুল্লাপুর বাজারে শীতের সবজিঃ দাম উর্ধ্বমুখী

সাদুল্লাপুর প্রতিনিধিঃ সাদুল্লাপুর বিভিন্ন হাটে-বাজারে দিনদিনে বাড়ছে শীতকালীন সবজির আমদানী। এমন আমদানি অব্যাহত থাকলেও, দাম বেড়েছে উর্ধ্বমুখী। এবারে দাম চড়া হওয়ায় সাধারণ ক্রেতারা সবজি কিনতে হিমসিম খাচ্ছেন। সেই সাথে পেঁয়াজ যেন সোনার হরিণ। জানা গেছে, সাদুল্লাপুর উপজেলায় গো-খাদ্যের সংকটসহ বেড়েই চলছে সবজির দাম। সেই সাথে পেঁয়াজের গায়ে যেন আগুন লেগেছে। প্রতিটি সবজির দাম দ্বিগুন হারে বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতা সাধারণের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে চলে গেছে। ফলে সবজি এখন সাধারণ মানুষের মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। সাদুল্লাপুর উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শীতকালীন সবজি হিসেবে ফুলকপি প্রতি কেজি ৬০ টাকা, বাঁধাকপি ৪০ টাকা, সীম ৭৫ টাকা, মূলা ৩০ টাকা, লাউ ৪০ (পিস প্রকার ভেদে) টাকা, করলা ৪০ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, বটবটি ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৩৫ টাকা, পালং শাক ২৫ টাকা, লাল শাক ২০ টাকা, টমেটো ৮৫ টাকা, পোটল ৪০, গাজর ১৪০ টাকা, ধনেয়াপাতা ২০০ টাকা, ওঁল ৫০ টাকা ও পেঁয়াজ ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
সবজি কিনতে আসা আমিনুর রহমান জানান, বর্তমানে সাধারণ মানুষ বাজার করতে গিয়ে অল্প কিছু সবজি কিনেই বাড়ি ফিরছেন। নিত্যপণ্যে সবজি দাম এ অবস্থা চলতে থাকলে শ্রমজীবি সাধারণ মানুষ বিপদে পড়বে। সাদুল্লাপুর বাজারের খুচরা সবজি বিক্রেতা আকু মিয়া বলেন, পাইকারী বাজারে দাম বৃদ্ধি হওয়ায় খুচরা বাজারে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। সবজি চাষি জহুরুল ইসলাম বলেন, এবারে বয়ে গেছে ভয়াবহ বন্যা। ফলে শীতকালীন সবজি চাষে বিলম্ব করা হয়েছে। চাষকৃত সবজি ক্ষেত থেকে উৎপাদন হচ্ছে কম। ফলে দাম একটু বেড়েছে।
সাদুল্লাপুর উপজেলা কৃষি অফিসার খাজানুর রহমান জানান, কিছুদিন আগে অতিবৃষ্টিতে সবজির জমিতে পানি উঠায় উৎপাদন ক্ষমতা কমে গেছে। ফলে আমদানির তুলনায় চাহিদা বেশির কারণে সবজির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com