শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০১:০৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
চরাঞ্চলের মানুষের দুঃখ দূর্দশা লাঘবের জন্য চর উন্নয়ন বোর্ড করা দরকার -ডেপুটি স্পীকার প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১৬ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণঃ ধর্ষক গ্রেফতার হেড ফোন কানেঃ ট্রেনের ধাক্কায় প্রান গেলে যুবকের দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেয়ে আনন্দিত ভিক্ষুক শুকুর আলী ধাপেরহাটে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকারের যৌথ অভিযান ৪ আলু ব্যাবসায়ীর ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ধাপেরহাটে ১০ দিনে ৭টি বাসা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দুঃসাহসিক চুরি গাইবান্ধায় তিনদিনব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা সমাপ্ত ধর্ষণ মামলার আসামী মুক্তি পেয়ে বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি শহরের ডিবি রোড চলাচলের অযোগ্যঃ পথচারীদের দুর্ভোগ কিন্ডার গার্টেন স্কুলের শিক্ষকদের মানববন্ধন স্মারকলিপি প্রদান

সাঘাটায় নৈশ প্রহরী আত্নহত্যা

সাঘাটায় নৈশ প্রহরী আত্নহত্যা

সাঘাটা প্রতিনিধিঃ সাঘাটা উপজেলার যাদুর তাইড় গ্রামে চুরির অপবাদ সইতে না পেরে গত রবিবার ভোরে আত্নহত্যা করেছে ভাদু বিশ্বাস (৫৫) নামের নৈশ প্রহরী।
স্থানীয়রা ও পরিবার সূত্র জানায়, উপজেলার যাদুর তাইড় গ্রামের পূর্ন চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে ভাদু বিশ্বাস সাঘাটা টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের নৈশ প্রহরী হিসাবে কর্মরত ছিল। গত শুক্রবার উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাতে দুটি কম্পিউটার এবং ল্যাপটপ চুরি হয়। অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু গত শনিবার সাঘাটা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। থানার এ এস আই মোশারফ ঘটনা স্থলে তদন্তে এসে নৈশ প্রহরী ভাদুকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মিমাংশার কথা বলে প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা মুচলিকা দিয়ে ছেড়ে নিয়ে আসেন। অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু ও স্থানীয় ঘুড়িদহ ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আজহার আলী মিন্টু চুরি মালামাল বাবদ তিন লক্ষ টাকা জরিমানা দাবি করে ভাদুর কাছে। তা না হলে জেল হাজতে পাঠাবে বলে হুমকি দেয়। গরিব মানুষ তিন লক্ষ টাকার চিন্তায় অপবাদ সইতে না পেরে রাতে সবার অজান্তে রান্না ঘরে ধর্নার সাথে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। স্ত্রী ঘুম থেকে উঠে দেখে তার স্বামী বিছানায় নেই। খোজা খুজির এক পর্যায়ে রান্না ঘড়ে দেখতে পেয়ে বাচানোর চেষ্টায় রশি খুলে মাটিতে নামায় ও ততক্ষণে সে মারা যায়। স্থানীয় আবুল কালাম আজাদ বলেন, ভাদু খুব ভাল মানুষ ছিলেন। ভাদুর স্ত্রী সুধারানী বলেন, অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু তিন লাখ টাকা চাওয়ায় সে চিন্তায় রাতে ফাঁস দিয়ে মারা যায়। অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু ও সাবেক ইউপি সদস্য আজহার আলী মিন্টু সাথে কথা হলে তারা তিন লক্ষ টাকা চাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন। সাঘাটা থানা অফিসার ইনচার্জ বেলাল হোসেন জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভাদুকে থানায় আনা হয়।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com