বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
করোনা মোকাবেলায় গাইবান্ধা দেশের রোল মডেলঃ এ্যাডঃ উম্মে কুলসুম স্মৃতি (এমপি) শেখ কামালের জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে ক্রীড়া সংস্থার সংবাদ সম্মেলন সাঘাটায় ব্যবসায়ির গাড়ীর গতি রোধ করে মারপিট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি গ্রহন গাইবান্ধায় করোনায় একজনের মৃত্যুঃ নতুন শনাক্ত ৪৪ প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে সদর থানার নবাগত ওসির মতবিনিময় গাইবান্ধার গ্রাম পুলিশদের ঠিকাদার কর্তৃক নিম্নমানের বাইসাইকেল সরবরাহ গাইবান্ধায় করোনায় পাঁচজনের মৃত্যুঃ নতুন শনাক্ত ৫৬ গোবিন্দগঞ্জে শ্রমিকদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেখ কামালের ৬৭ তম জন্মদিন উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের সভা

রামচন্দ্রপুরে ব্যবসায়ী হত্যায় ২৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রামচন্দ্রপুরে ব্যবসায়ী হত্যায় ২৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টারঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নে কম দামে মিষ্টি বিক্রিকে কেন্দ্র করে এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে মোট ২৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গত ১৮ জুন নিহতের বড় ভাই খোকন সরদার বাদি হয়ে সদর থানায় হত্যার অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় বালুয়া বাজার এলাকার শফি কাজির ছেলে সোহান মিয়া ও তার ভাই সোহেল মিয়া এবং স্মরণসহ ১৬ জনকে আসামি করা হয়। এরমধ্যে প্রধান আসামি সোহান মিয়া ঢাকায় ডিএমপি পুলিশের কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত।
উল্লেখ্য বালুয়া বাজারে কাজী হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট এবং দুই বোন মিষ্টান্ন ভান্ডার দীর্ঘদিন মিষ্টি বিক্রি করে আসছিল । কিন্তু দুই বোন মিষ্টান্ন ভান্ডারের মিষ্টির দাম কম হওয়ায় বিক্রিও বেশি হতো । এরই ক্ষোভে কাজী হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের মালিকের ছেলে মাদকাসক্ত সোহেল মিয়াসহ কয়েকজন স্থানীয় ব্যক্তি দুই বোন মিষ্টান্ন ভান্ডারের মালিক কাঞ্চনকে মারধর করে। পরে বিষয়টি ইউপি সদস্য আশিকুজ্জামান সাথী ১৭ জুন রাতেই সোহেলের বাবা কাজী শফিউল ইসলামের সঙ্গে কথা বলতে যান।
এ সময় পুলিশ সদস্য সোহান ও মাদকাসক্ত সোহেল ক্ষিপ্ত হয়ে তারা কয়েক ভাই মিলে ইউপি সদস্যের ওপর হামলা করে। খবর পেয়ে ইউপি সদস্য আশিকুজ্জামান সাথীর দুই চাচা জিল্লুর রহমান ও রোকন মিয়া এগিয়ে এলে তাদেরও ওপর হামলা করে তারা। এতে ঘটনাস্থলে ফল কাটা ছুরির আঘাতে রোকন মিয়া মারা যান। গুরুতর আহত জিল্লুর রহমানকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
গাইবান্ধা সদর থানার অপারেশন ওসি রজব আলী জানান, মামলার পরই অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি সোহানের মা পদ্ম বেগমকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া মামলার অন্য আসামিদেরকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com