রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

রওশনবাগ কমিউনিটি ক্লিনিক ১৬ দিন থেকে বন্ধ

রওশনবাগ কমিউনিটি ক্লিনিক ১৬ দিন থেকে বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টারঃ পলাশবাড়ীতে দায়িত্বরত সিএইচসিপি কারাগারে থাকায় ১৬ দিন ধরে রওশনবাগ কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ রয়েছে। স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন জনসাধারন। উপজেলার বেতকাপা ইউপি’র রওশনবাগ কমিউনিটি ক্লিনিকের দায়িত্বরত সিএইচসিপি মিনহাজুল মিয়া প্রতিপক্ষের একটি মামলায় গত ১৬ দিন তিনি কারাবাসে রয়েছেন। চলতি সেপ্টেম্বরের শুরুতে প্রতিপক্ষের একটি মামলায় জেলহাজতে যান তিনি। এ কারণে পরিবারের পক্ষ থেকে তড়িঘড়ি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বরাবরে প্রথমে ৭ থেকে ১২ সেপ্টেম্বরে পর্যন্ত একটি ছুটির আবেদন দেন। ছুটি অনুমোদনও করেন কর্তৃপক্ষ।
এদিকে ওই সময়ের মধ্যে মিনহাজুল মামলায় জামিন পেতে ব্যর্থ হন। ফলে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি তার কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছেন। এমতাবস্থায় করোনাকালীন সময় ওই এলাকার জনসাধারন সার্বিক স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। প্রতিনিয়ত এলাকাবাসী ক্লিনিকটিতে সেবা নিতে এসে বিমুখ হয়ে বাড়ী ফিরছেন।
অপরদিকে; সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে প্রাথমিক শাস্তিমূলক কোন ব্যবস্থা গ্রহণ কিংবা ডিপোটেশনে কাউকে দায়িত্ব না দেয়ায় এলাকার সচেতন জনমনে মিশ্র প্রতিক্রিয়াসহ নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে।
গত সোমবার সকালে বিষয়টি সরেজমিন প্রত্যক্ষ করতে গিয়ে ক্লিনিকটি তালাবদ্ধ অবস্থায় দেখা যায়। স্থানীয়রা জানান দীর্ঘদিন ধরেই ক্লিনিকটি তালাবদ্ধ অবস্থায় বন্ধ রয়েছে। প্রতিনিয়ত অসুস্থ্য মানুষজন ওষুধ নিতে এসে নিরুপায় হয়ে বাড়ী ফিরে যাচ্ছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এলাকায় ডিস লাইন সংযোগ সংক্রান্ত সৃষ্ট ঘটনার জের ধরে পলাশবাড়ী থানায় দায়েরকৃত মামলার আসামী রাজনগর গ্রামের মৃত মহাসেন আলীর ছেলে মেনহাজুল মিয়া জামিন নিতে গেলে বিজ্ঞ আদালতে তার জামিন না মুঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন। পার্শ্ববর্তী বলরামপুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে সেলিম মিয়া ওরফে মানিক ওই মামলার বাদী বলে জানা যায়।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মুহাম্মদ আনিসুর রহমান জানান, ক্লিনিক বন্ধ থাকার বিষয়টি আমি এবং সিভিল সার্জন অবগত আছি। ইতোমধ্যেই তাকে একটি শোকজ নোটিশ দেয়া হয়েছে। তারপরও তার বিষয়ে নিয়ম অনুযায়ী সবদিক বিবেচনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে তিনি জানান।
এদিকে বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর সার্বিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে এলাকাবাসী সিভিল সার্জনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com