বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০১:২৭ অপরাহ্ন

যৌতুকের দাবিতে গাইবান্ধায় গৃহবধূকে সিগারেটের ছ্যাঁকা, গ্রেফতার ১

যৌতুকের দাবিতে গাইবান্ধায় গৃহবধূকে সিগারেটের ছ্যাঁকা, গ্রেফতার ১

স্টাফ রিপোর্টারঃ যৌতুকের দাবিতে রূপা আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূকে সিগারেটের ছ্যাঁকা দিয়ে নির্যাতনের অভিযোগে তার স্বামী মোঃ আসাদুল ইসলামকে (২৭) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আসাদুল ইসলাম গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ী ইউনিয়নের মৌজা মালিবাড়ী সজাইপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদ ডিপটির ছেলে।
গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে নির্যাতিতা রূপা আক্তারের মা মোছাঃ তারফিনা বেগম এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। তার আগেই মোছাঃ তারফিনা বেগমের মৌখিক অভিযোগে গত বুধবার রাতেই আসাদুলকে গ্রেফতার করে সদর থানা পুলিশ।
সুন্দরগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম ছাপড়হাটী খানপাড়া গ্রামের তারফিনা বেগম জানান, তার মেয়ে রূপা আক্তারের সঙ্গে দুইবছর আগে মৌজা মালিবাড়ী সজাইপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদ ডিপটির ছেলে আসাদুল ইসলামের বিয়ে দেন। বিয়ের পর থেকে আসাদুল যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে প্রায়ই মারপিট করতেন। এনিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠকও করা হয়। মাত্র ২৮ দিন আগে একটি সন্তান প্রসব করেছেন রূপা আক্তার। এমতাবস্থায় আসাদুল স্ত্রীকে এক লাখ টাকা আনার জন্য চাপ দিয়ে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। পরবর্তীতে বাড়িতে নিয়ে এসে এ নিয়ে বাগবিত-ার এক পর্যায়ে রূপার শরীরে সিগারেটের ছ্যাঁকা দেন আসাদুল ও তার পরিবারের লোকজন। পরবর্তীতে গত ১৯ আগস্ট রাতে একই দাবিতে মারপিট ও সিগারেটের ছ্যাঁকা দেওয়া হয়। এতে রূপা অসুস্থ হয়ে পড়লে খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে রূপা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
রূপা আক্তার জানান, যৌতুকের দাবিতে তার স্বামী প্রায়ই তাকে মারধর করতেন। এছাড়া একাধিকবার সিগারেটের ছ্যাঁকা দেওয়া হয়। এতে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়তেন।
সদর থানার ওসি খান মোঃ শাহরিয়ার জানান, মৌখিক অভিযোগ পেয়েই অভিযান চালিয়ে আসামি আসাদুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি প্রাথমিকভাবে নির্যাতনের কথা স্বীকার করেছেন। অন্য আসামিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com