বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন

মেডিকেলে ভর্তির দুই শিক্ষার্থীকে সহায়তা প্রদান করেন জেলা প্রশাসক

মেডিকেলে ভর্তির দুই শিক্ষার্থীকে সহায়তা প্রদান করেন জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টারঃ গাইবান্ধা জেলার দারিদ্রপীড়িত মেধাবী শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোয় মানবিক হয়ে উঠেছেন গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক মোঃ আবদুল মতিন। শুধু তাই নয় দারিদ্রপীড়িত মেধাবী শিক্ষার্থীদের আশ্রয়স্থল হয়ে উঠেছেন তিনি।
তাই যখনই শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা থমকে যাবার উপক্রম হয়, তারা ছুটে আসেন জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে। লিমন এবং গোবিন্দের পর গতকাল বুধবার
জেলা প্রশাসকের কাছে মেডিকেলে ভর্তির জন্য আর্থিক সহায়তা চাইতে ছুটে এসেছিল আশিক ও নুদরাত নামের দুই শিক্ষার্থী। দারিদ্রকে জয় করে নুদরাত ভর্তির সুযোগ পেয়েছে রংপুর মেডিকেল কলেজে আর আশিক ভর্তির সুযোগ পেয়েছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে। গাইবান্ধা সদর উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা নুদরাত ৭ম শ্রেণীতে পড়ার সময় তার পিতা মৃত্যুবরন করায় তার গৃহিণী মায়ের কাছে নুদরাতের পড়ালেখার খরচ বহন করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছিল। অন্যদিকে সাদুল্লাপুরের ৩ নং দামোদরপুর ইউনিয়নের দরিদ্র কৃষক মোশাররফ হোসেনের সন্তান আশিক মেডিকেল ভর্তির সুযোগ পেয়েও অর্থ সঙ্কটে পড়ায় তার এমন কৃতিত্ব ছিল পরিবারের জন্য বোঝাস্বরুপ। পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতা সত্বেও নিজের মেধাকে পুঁজি করে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ২২০৯ তম হয়েছে নুদরাত এবং ১০৫৯ তম হয়েছে আশিক। কিন্তু এই অদম্য মেধাবীদের মেডিকেল ভর্তি খরচ দেয়া তাদের পরিবারের পক্ষে বর্তমানে অসম্ভব। এমন সময়ে এই অদম্য মেধাবীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন গাইবান্ধা জেলার মানবিক জেলা প্রশাসক মোঃ আবদুল মতিন। তিনি গতকাল বুধবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ডেকে এনে মেডিকেলে ভর্তির জন্য দুই শিক্ষার্থীকে ১৫ হাজার টাকা করে আর্থিক সাহায্য প্রদান করেন এবং যে কোন প্রয়োজনে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়ার আশ্বাস দেন। জেলা প্রশাসক কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য, শুভকামনা এবং দোয়া পেয়ে আপ্লুত হয়ে এই মেধাবী শিক্ষার্থীরা জেলা প্রশাসনের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে এবং ভবিষ্যতে ডাক্তার হয়ে দুস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করে। ভর্তির জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদানের সময় ঐ দুই শিক্ষার্থীর অভিভাবকসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com