মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১২:৩৪ অপরাহ্ন

বৃষ্টিতে জলাবদ্ধ হয়ে পড়েছে গাইবান্ধা পৌরসভাসহ জেলার ৭ উপজেলা

বৃষ্টিতে জলাবদ্ধ হয়ে পড়েছে গাইবান্ধা পৌরসভাসহ জেলার ৭ উপজেলা

স্টাফ রিপোর্টারঃ পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় ও প্রয়োজনীয় ড্রেনের অভাবে গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে গাইবান্ধা পৌরসভার সবগুলো ওয়ার্ডের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাঘাট ও আবাসিক এলাকা জলাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। বাড়ীর আঙিনা ও ঘরের ভেতর পানি প্রবেশ করেছে। এতে করে পৌরবাসীকে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে।
সরেজমিনে দেখে ও খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতাল সড়ক, জেনারেল হাসপাতাল ও সিভিল সার্জনের কার্যালয় চত্ত্বর, খাঁপাড়ায় গাইবান্ধা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র (মাতৃসদন) রোড, পুরাতন হাসপাতাল রোড, মধ্যপাড়া স্কুল রোড, (সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়) ভিএইড রোড, মুন্সি পাড়া, পানি উন্নয়ন বোর্ড রোড, অনামিকা লেন, পলাশপাড়ায় গাইবান্ধা ক্লিনিকের সামনের সড়ক, শাপলাপাড়ায় মায়া ক্লিনিকের সামনের সড়ক, সুখশান্তির বাজার-খানকাহ শরীফ রোড, গাইবান্ধা ডিবি রোড জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। এসব সড়কসহ আবাসিক এলাকাগুলোয় হাঁটু পানি জমেছে। বৃষ্টিতে পঁচা ময়লা আবর্জনা সবখানে ছড়িয়ে পড়ায় আরও বেশি করে ভোগাচ্ছে মানুষকে। এছাড়া গাইবান্ধা শহরের ডিবি রোডসহ বেশ কিছু সড়কে বৃষ্টির পানি জমে রাস্তার পিচ উঠে খানা-খন্দের সৃষ্টি হওয়ায় যাতায়াতে চরম বিপাকে পড়তে হচ্ছে মানুষদের। বৃষ্টিতে ভেসে গেছে হাসপাতালের রোগীদের ফেলে দেওয়া বিভিন্ন উপকরণ। ফলে সেই পানি গায়ে লেগে মানুষ চর্মরোগসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।
গাইবান্ধা নাগরিক পরিষদের আহবায়ক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু বলেন, পানি নিঃষ্কাশনের জন্য গাইবান্ধা পৌর শহরে ও আবাসিক এলাকাগুলোয় পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা নেই। দুই-একটি থাকলেও সেগুলো উঁচু করে নির্মাণ করা হয়েছে। ফলে ড্রেনগুলো কোনো কাজে লাগছে না। ফলে পানি নিঃষ্কাশন হতে না পেরে সামান্য বৃষ্টিতেই রাস্তা ও আবাসিক এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। আর এ কারণে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পৌরবাসীকে।
এ বিষয়ে গাইবান্ধা পৌরসভার মেয়র শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন বলেন, বৃষ্টির কারণে শহরের ড্রেনগুলোয় ময়লা-আবর্জনার জটলা লেগেছে। ফলে পানি নিঃষ্কাশন হতে পারছে না। শহরের পানি নিঃষ্কাশনের জন্য গুরুত্বপুর্ণ সড়কগুলোতে নতুন করে ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে। ড্রেন নির্মাণ কাজ শেষ হলে শহরে জলাবদ্ধতা থাকবে না।

 

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com