বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

বিচার দাবিতে ফুলছড়িতে লাশ নিয়ে থানা ঘেরাওঃ পুলিশের লাঠিচার্জ

বিচার দাবিতে ফুলছড়িতে লাশ নিয়ে থানা ঘেরাওঃ পুলিশের লাঠিচার্জ

স্টাফ রিপোর্টারঃ ফুলছড়ি উপজেলায় জমিজমা নিয়ে এক সংঘর্ষে নিহত নুরুন্নবী মিয়া (৪০) মৃত্যুর ঘটনায় লাশ নিয়ে বিচারের দাবিতে মঙ্গলবার সকালে স্বজন ও স্থানীয়রা মঙ্গলবার থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছে। এ সময় পুলিশ লাঠিচার্জ করে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিয়ে লাশ ছিনিয়ে নেয়। পরে উপজেলা পরিষদের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে তারা।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ফুলছড়ি উপজেলার দক্ষিণ বুড়াইল গ্রামের বাসিন্দা নুরুন্নবী মিয়ার সাথে প্রতিবেশী গোলজার মিয়ার দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে সোমবার নুরুন্নবী বিরোধপূর্ণ জমিতে গেলে প্রতিপক্ষ গোলজার মিয়া ও তার লোকজন অতর্কিত হামলা চালায়। এতে নুরন্নবী মিয়াসহ কয়েকজন গুরুতর আহত হয়। গুরুতর আহত নুরুন্নবী মিয়াকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার ভোরে তার মৃত্যু হয়। নিহতের স্বজনরা হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে লাশ নিয়ে মঙ্গলবার সকালে ফুলছড়ি থানায় গেলে পুলিশের সাথে তাদের তর্কবিতর্ক ও ধাক্কাধাক্কি হয়। এ সময় পুলিশ বিক্ষোভকারীদের লাঠিচার্জ করে। পরে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে লাশ কেড়ে নিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
এ ঘটনার বিচারের দাবিতে বিক্ষুদ্ধ জনতা ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদের সামনে এক মানববন্ধন করে। পরে গাইবান্ধার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্যাহ আল মামুন ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। এব্যাপারে ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাফিকুজ্জামান বসুনিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নিহতের স্বজন ও গ্রামবাসীরা লাশ নিয়ে থানায় এলে পুলিশের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। পরে তাদের কাছ থেকে লাশ নিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com