মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫২ অপরাহ্ন

বসন্ত ও ভালোবাসা দিবসকে রাঙাতে জমজমাট ফুলের বাজার

বসন্ত ও ভালোবাসা দিবসকে রাঙাতে জমজমাট ফুলের বাজার

স্টাফ রিপোর্টারঃ ফেব্রুয়ারি মাসের তিন উৎসবকে সামনে রেখে গাইবান্ধার ফুলবাজার জমে উঠেছে। সারাবছর কমবেশি ফুল বেচাকেনা হলেও মূলত বসন্ত বরণ উৎসব, ভ্যালেন্টাইন ডে আর ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সামনে রেখেই জমজমাট হয়ে ওঠে এ ফুলের বাজার।
গাইবান্ধা জেলা শহরের ফুল ব্যবসায়ী নয়ন কুমার সরকার বলেন, বসন্ত বরণ উৎসব, ভালবাসা দিবস আর ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সামনে রেখে বেচাকেনা বেড়ে যায়। এ বছর উৎপাদন ভালো হয়েছে। ফলে কেবল এ তিন উৎসবেই জেলা শহরের ফুলের দোকানগুলোতে বেচাকেনা প্রায় অর্ধ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশা করছি। তবে এ বছর বাগান থেকে বেশি দামে ফুল কিনতে হচ্ছে।
তিনি বলেন, ভালবাসা দিবসে রঙিন গ্ল্যাডিওলাস, জারবেরা, রজনীগন্ধা ও গোলাপ বেশি বিক্রি হয়। আর গাঁদা ফুল বেশি বিক্রি হয় একুশে ফেব্রুয়ারি ও বসন্ত উৎসবে।
গতকাল গাইবান্ধার ডিবি রোডে ফুলের দোকানগুলো ঘুরে দেখা গেছে, পাইকারি ও খুচরা ফুল বিক্রির পাশাপাশি ফুলের ঝুড়ি, তোড়া, কাগজের কার্টুন, বাঁশের খাঁচা, মালা, ক্রাউন তৈরিতে ব্যবসায়ীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন। এসব ফুলের দোকানে কয়েক জাতের গোলাপ, গাঁদা, চন্দ্রমল্লিকা, ডালিয়া, রজনীগন্ধা, জারবেরা, জিপসি, রডস্টিক, কেলেনডোলা, গ্ল্যাডিওলাস, অর্কিড, কসমস, ঝুমকা লতা বিক্রি হচ্ছে।
কনা ফুল ঘরের স্বত্বাধিকারী জহুরুল ইসলাম বলেন, বসন্ত বরণ উৎসব ও ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষে বাগানগুলোতে পাইকারি ফুলের দাম বছরের অন্য সময়ের তুলনায় কিছুটা বাড়তি। গাইবান্ধার পাইকারি বাজারে প্রতি পিস সাদা, গোলাপি, হলুদ গোলাপ মান ভেদে ১৪ থেকে ১৮ টাকা, বাসন্তী, হলুদ ও মেরি গাঁদা প্রতি বালি (১০০ পিস) মান ভেদে ১২০ থেকে ১৭০ টাকা, চন্দ্রমল্লিকা প্রতি পিস ১০ থেকে ১২ টাকা, গোলাপি, হলুদ, সাদা, নীল রঙের গ্ল্যাডিওলাস প্রতি পিস ১৬ থেকে ১৮ টাকা, জারবেরা প্রতি পিস ২২ টাকা এবং রজনীগন্ধা প্রতি পিস ১২ থেকে ১৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
খুচরা ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি পিস গোলাপ মান ভেদে ২৭ থেকে ৩২ টাকা, মান ভেদে গাঁদা প্রতি মালা ১৭০ থেকে ২২০ টাকা, চন্দ্রমল্লিকা ও কেলেনডোলা প্রতি পিস ১৭ থেকে ২২ টাকা, গ্ল্যাডিওলাস প্রতি পিস ২২ থেকে ২৭ টাকা, জারবেরা প্রতি পিস ২৭ থেকে ৩২ টাকা, জিপসি পরিমাণ অনুযায়ী ১২ থেকে ২২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া জুঁই-বেলি মালা ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
গাইবান্ধার ফুল বাজারের খুচরা ব্যবসায়ীরা জানান, অনেক ক্রেতা মনে করেন খুচরা বাজারেও ফুলের দাম বেশি। ফুল কাঁচামাল। পাইকারি বাজারের সঙ্গে খুচরা বাজারের মিল পাওয়া যায় না। তবে দিবস কেন্দ্রীক ফুলের দাম কিছুটা বেড়েছে।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com