বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন

ফুলছড়িতে যৌতুকের জন্য আট মাসের অন্তঃসত্ত্বাকে নির্যাতন

ফুলছড়িতে যৌতুকের জন্য আট মাসের অন্তঃসত্ত্বাকে নির্যাতন

ফুলছড়ি প্রতিনিধিঃ ফুলছড়ি উপজেলার কাতলামারী গ্রামের আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধুকে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, দুই বছর আগে উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের কাতলামারী গ্রামের মৃত কাশেম আলীর পুত্র নজরুল ইসলামের সাথে পার্শ্ববর্তী আবু সায়েদ আলীর মেয়ে সাবানা বেগমের বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকে বিভিন্ন সময় সাবানা বেগমকে তার স্বামী নজরুল ইসলাম যৌতুকের জন্য নির্যাতন করতো। স্থানীয়ভাবে বিষয়টি বিভিন্ন সময় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ মিমাংসা করে দেন।গত ১ আগস্ট আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা সাবানা বেগমকে স্বামী নজরুল ইসলাম ও তার ভাই বাদশা মিয়া, সিরাজল হক, শ্বাশুরী ফাতেমা বেগম, আছমা বেগম ও লাকি বেগমসহ আরো কয়েকজন যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে রক্তাক্ত, জখম করে এবং সাবানা বেগমকে তার বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। পুনরায় গত ৫ আগস্ট সাবানা বেগমের বাবার বাড়িতে লাঠি সোটা নিয়ে এসে সাবানার বাবাকে উল্লেখিত ব্যক্তিগণ অনধিকার প্রবেশ করে কিল-ঘুসি মেরে আহত করে। এছাড়া তাদেরকে বিভিন্নভাবে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে। এবিষয়ে বিচার চেয়ে সাবানার বাবা আবু সায়েদ আলী গত শুক্রবার ফুলছড়ি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ফুলছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) তাজুল ইসলাম বলেন, অন্তঃসত্ত্বা একজন নারীকে নির্যাতনের একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com