শুক্রবার, ০২ জুন ২০২৩, ১০:২১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
সাপমারা ইউনিয়ন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত শিক্ষা ব্যাবস্থা উন্নত আধুনিক ও শিক্ষার মান উন্নয়নের কৃতিত্ব একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর -মাহমুদ হাসান রিপন এমপি সুন্দরগঞ্জে সাব প্রাণী সম্পদ কল্যাণ কেন্দ্রের বেহালদশাঃ গ্রাম গঞ্জে পশু ডাক্তারের নামে হাতুড়ে ডাক্তারের ছড়াছড়ি গাইবান্ধায় আওয়ামীলীগের ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ উদযাপন সাঘাটায় রেকর্ডভুক্ত জমিতে ব্রীজ নিমার্ণ কাজে বাধাঁ প্রদান করায় ঠিকাদার কর্তৃক থানায় অভিযোগ কলেজপাড়ায় পৌর নাগরিকদের সভা নলডাঙ্গায় নবীন ও বসন্ত বরণ অনুষ্ঠান গাইবান্ধায় স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে মতবিনিময় সভা গাইবান্ধায় মহিলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন গোবিন্দগঞ্জে সরকারি বই বিক্রিকালে জনতার হাতে শিক্ষক-কর্মচারী আটক

ফুলছড়িতে ধর্ষিতার পরিবারের হত্যার হুমকি

ফুলছড়িতে ধর্ষিতার পরিবারের হত্যার হুমকি

স্টাফ রিপোর্টারঃ ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব চন্দিয়া গ্রামে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর পরিবারের সবাইকে হত্যার হুমকি দিয়েছে অভিযুক্ত ধর্ষক সোহাগ মিয়ার ভাই সোহেল মিয়া। এ ঘটনায় ফুলছড়ি থানায় অভিযোগ করা হয়েছে (জিডি নং ৭৪৩)।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব চন্দিয়া গ্রামে এক দরিদ্র কৃষি শ্রমিকের স্কুল পড়–য়া মেয়েকে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণ করে একই গ্রামের ওয়াহেদ মিয়ার বখাটে ছেলে সোহাগ মিয়া। ধর্ষণে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়। এলাকাবাসীর চাপে বাধ্য হয়ে ধর্ষকের পিতা ওয়াহেদ ও মা সহিদা বেগম ধর্ষিতা মেয়েটিকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এক পর্যায়ে কৌশলে ডেকে বাড়ি নিয়ে গিয়ে ভুল বুঝিয়ে মেয়েটিকে ট্যাবলেট খাইয়ে দেন সহিদা বেগম। এতে অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটির গর্ভপাত হয়। এ ঘটনায় অসহায় মেয়েটির পিতা বাদী হয়ে ২০২১ সালের ৪ জুলাই নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ফুলছড়ি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (নং ৩)।
স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ওষুধ প্রযোগে গর্ভপাত করানোর অভিযোগে করা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় গ্রেফতার অভিযুক্ত সোহাগ মিয়া গাইবান্ধা জেলা কারাগারে আটক রয়েছে। ধর্ষক সোহাগ মিয়ার ভাই সোহেল মিয়া প্রথমে ধর্ষিতার ভাইকে মোবাইল ফোনে ও পরে বাড়ি এসে তার মাকে ঈদের আগে মামলা তুলে নিতে বলে, মামলা না তুললে পরিবারের সবাইকে হত্যার হুমকি দেয়। এব্যাপারে ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ফোন করে এবং মোবাইল ফোনে মেসেজ পাঠিয়েও তার বক্তব্য বা সাড়া পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com