রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম

পৌর এলাকার স্থায়ী মাস্টার প্লান তৈরীর উদ্যোগ

পৌর এলাকার স্থায়ী মাস্টার প্লান তৈরীর উদ্যোগ

স্টাফ রিপোর্টারঃ গাইবান্ধা পৌর এলাকার বিদ্যমান জেলা শহরটিকে পরিকল্পিতভাবে গড়ে তোলার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে গাইবান্ধা পৌরসভার ১৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে দীর্ঘ প্রত্যাশিত একটি স্থায়ী মাস্টার প্লান তৈরীর উদ্যোগ বাস্তবায়িত হচ্ছে পৌর মেয়র অ্যাডঃ শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবির মিলনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। মাস্টার প্লান তৈরীর লক্ষ্যে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, ব্র্যাক আরবান ডেভলপমেন্ট প্রকল্প ও গাইবান্ধা পৌরসভা যৌথভাবে কার্যক্রম শুরু করেছে।
গতকাল বুধবার এই প্রকল্পের আওতায় গাইবান্ধা স্বাধীনতা প্রাঙ্গণে ডিজিটাল ড্রোন জরীপের কার্যক্রম শুরু করা হয়। এর উদ্বোধন করেন পৌর মেয়র অ্যাডঃ শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবির মিলন। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র তানজিমুল ইসলাম পিটার, গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর সাবু, পৌর কাউন্সিলর রকিবুল হাসান সুমন, পৌরসভার প্রকৌশলী শফিউল ইসলাম, হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা বিপুল কুমার সাহা, পুষ্টি উন্নয়ন কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম, মাসুদুল হক মাসুদ, ব্র্যাক প্রধান কার্যালয়ের মনিটরিং ম্যানেজার মোঃ কামাল হোসেন, রিজিওনাল কো-অর্ডিনেটর অপূর্ব সাহা, ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর আশরাদ আনিছুর রহমান, মনিটরিং এন্ড ইভায়ুলেশন অফিসার সুরেন মন্ডল, অবকাঠামো উন্নয়ন অফিসার হাফিজুর রহমান, শাহীন হোসেন প্রমুখ।
এজন্য ইতোমধ্যে ব্র্যাক আরবান ডেভলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় গাইবান্ধা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ফিজিক্যাল জরীপ, ১ হাজার ৪শ’ পরিবারের সাক্ষাতকার গ্রহণ করে আর্থ-সামাজিক জরীপ, ১৭টি গ্রুপের মাধ্যমে পৌর এলাকায় পিআরএ জরীপ সম্পন্ন করা হয়েছে। সর্বশেষে ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে ড্রোন সার্ভের জরীপ কার্যক্রম গতকাল বুধবার থেকে শুরু করা হয়। ড্রোন জরীপ সম্পন্ন হলেই গাইবান্ধা পৌর এলাকার একটি স্থায়ী মাস্টার প্লান প্রণয়নের কাজ সম্পন্ন হবে। উল্লেখ্য, ব্র্যাক নিজস্ব অর্থায়নে গাইবান্ধা পৌরসভার এই স্থায়ী মাস্টার প্লানটি তৈরী করতে সার্বিক সহযোগিতা করছে।
ব্র্যাক সুত্রে জানানো হয়, গাইবান্ধা পৌর এলাকায় ড্রোন জরীপের জন্য ৬টি বেঞ্চ মার্ক (স্থায়ী স্মারক চিহ্ন) স্থাপন করা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে পৌর পার্ক, দক্ষিণ বানিয়ারজান, বাসটার্মিনাল, টাবুপাড়া-মাঝিপাড়া, পূর্ব কোমরনই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মধ্য গোবিন্দপুরে। এই সমস্ত স্থায়ী পয়েন্টকে চিহ্নিত করেই গোটা পৌর এলাকায় ড্রোন জরীপ সম্পন্ন হবে। উল্লেখ্য, এই ড্রোনটি আকাশে উড়ে প্রতিটি ১৫ মিনিটে ৪ স্কয়ার কিলোমিটার জরীপ করবে এবং লাগাতার চারদিনে গোটা পৌর এলাকার জরীপ সম্পন্ন হবে। এই মাস্টার প্লানটির কাজ শেষ হলে ভবিষ্যতে শুধু গাইবান্ধা পৌর এলাকাই নয় এই জেলা শহরটিও একটি সুপরিকল্পিত অত্যাধুনিক শহরে পরিণত হবে। যা জনগণের কাংখিত প্রত্যাশা পূরণ করবে এবং উন্নত পরিবেশে বসবাস করার নিশ্চয়তা বিধানে সক্ষম হবে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com