শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৭:৪৯ অপরাহ্ন

পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করে সড়ক অবরোধঃ বালাসিতে ফেরি সার্ভিস চালুর নামে ১৪৫ কোটি টাকা অপচয়ের সাথে জড়িতদের শাস্তি দাবি

পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করে সড়ক অবরোধঃ বালাসিতে ফেরি সার্ভিস চালুর নামে ১৪৫ কোটি টাকা অপচয়ের সাথে জড়িতদের শাস্তি দাবি

স্টাফ রিপোর্টারঃ ফুলছড়ির বালাসিঘাট থেকে বাহাদুরাবাদঘাট পর্যন্ত ফেরি সার্ভিস চালুর নামে রাষ্ট্রীয় ১৪৫ কোটি টাকা অপচয়ের বিষয়ে গতকাল গাইবান্ধা নাগরিক মঞ্চ বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করে। জেলা শহরের ডিবি রোডের ১নং ট্রাফিক মোড় এলাকা গানাসাস মার্কেটের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ নাগরিকরা সড়ক অবরোধ করেন। এতে সড়কে যানজটের সৃষ্টি হলে পুলিশ বাঁধা দেয়। কিন্তু পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করেই সড়ক অবরোধ করে সমাবেশ চলে এবং পরে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।
নাগরিক মঞ্চের জ্যেষ্ঠ সদস্য ওয়াজিউর রহমান রাফেলের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে সংগঠনের সদস্য সচিব অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলাম বাবুসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়নুল ইসলাম রাজা, মিহির ঘোষ, মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, গোলাম মারুফ মনা, জিয়াউল হক জনি, রকিবুল ইসলাম রিটন, জিএম চৌধুরী মিঠু, জাহাঙ্গীর কবীর তনু, অধ্যাপক রোকেয়া খাতুন, আলমগীর কবীর বাদল, মঞ্জুর আলম মিঠু, নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, নূর মোহাম্মদ বাবু, মোক্তাদুর রহমান মিঠু, শামীম আরা মিনা প্রমুখ।
বক্তারা বলেন বালাসিঘাট থেকে বাহাদুরাবাদঘাট পর্যন্ত ফেরি সার্ভিস চালুর জন্য বিআইডাব্লিউটিএ ১৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ে টার্মিনালসহ অবকাঠামো নির্মাণ করেছে। কিন্তু সম্প্রতি বিআইডাব্লিউটিএর এক প্রতিবেদনে এই পথে আর ফেরি চালু করা সম্ভব নয় বলে উল্লেখ করা হয়। সম্ভাব্যতা যাচাই বাছাই ছাড়াই প্রকল্প বাস্তবায়ন করায় এই ফেরি রুটটি চালু করা সম্ভব হচ্ছে না বলে কর্তৃপক্ষ জানায়। বক্তারা প্রশ্ন তোলেন, এর জন্য দায়ী কে, কার বা কাদের স্বার্থে এই প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছিল?
বক্তারা এই বিপুল পরিমাণ রাষ্ট্রীয় অর্থ অপচয়ের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তি ও দুর্নীতির উৎস খুঁজে বের করে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানান। তারা বালাসিতে ব্রহ্মপুত্র সেতু বাস্তবায়নের আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com