শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৭:০২ অপরাহ্ন

পলাশবাড়ী-পীরগঞ্জ সীমান্ত এলাকার বদনাপাড়া করতোয়া নদীর তীর রক্ষা কাজের ব্লক নদী গর্ভে

পলাশবাড়ী-পীরগঞ্জ সীমান্ত এলাকার বদনাপাড়া করতোয়া নদীর তীর রক্ষা কাজের ব্লক নদী গর্ভে

পলাশবাড়ী প্রতিনিধিঃ পলাশবাড়ী-পীরগঞ্জ সীমান্ত এলাকায় বদনাপাড়া নামক স্থানে করতোয়া নদীর বাম তীর প্রতিরক্ষা কাজের শেষ না হতেই ২ বার নদী গর্ভে ব্লক ধসে যাওয়ায় কাজের গুণগত মান নিয়ে জনমনে নানা জল্পনা-কল্পনা সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে রংপুর জেলার মিঠাপুকুর, পীরগাছা, পীরগঞ্জ ও রংপুর সদর উপজেলার যমুনেশ^রী, ঘাঘট ও করতোয়া নদীর তীর সংরক্ষণ ও নদী পূণঃখনন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার করতোয়া নদীর বাম তীর বদনাপাড়া নামক স্থানে ০০ কিলোমিটার হতে ৪০০ মিটার নদীর তীর প্রতিরক্ষা কাজের ৪.২০.৭১.৯৪০,০৩৫ টাকা ব্যয়ে ২০/০৩/২০১৯ তারিখে খায়রুল করিব রানা ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে কাজ শুরু করা হয়। ২৭ জুন রাতে আনুমানিক ৫০ ফুট জায়গার ব্লক নদী গর্ভে ধসে যায়। উক্ত কাজ নিয়ে জনসাধারণের মাঝে নানা জল্পনা-কল্পনার দেখা দিয়েছে। তারা জানান, কিছুদিন পূর্বে আরও একবার উক্ত কাজের কিছু অংশের ব্লক ধসে গিয়েছিল। কাজ শেষ না হতেই ২ বার ব্লক ধসে যাওয়ার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট উপবিভাগীয় প্রকৌশলী গোলাম জাকারিয়াকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, নদীতে পানির গভীরতা বেশি থাকায় ব্লক নদীতে ধসে যাচ্ছে। উপসহকারী প্রকৌশলী ফারুক সিকদার জানান, ৪ বৎসরের মধ্যে যতবার ধসে যাবে ততবার ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সংস্কার করবে। অপরদিকে উক্ত কাজের কিছু অংশে জমির মালিক বদনাপাড়া গ্রামের জহির উদ্দীন ও হাজী নুরুল হাই জমির ভর্তুকি বাবদ ২০ হাজার টাকা প্রতি শতক দাবী করে কাজ বন্ধ করে দেন বলে এলাকাবাসী জানান। তারা আরও জানান, বাকী অংশের কাজ সমাপ্ত না হলে এবার বন্যায় পলাশবাড়ী, সাদুল্যাপুর ও পীরগঞ্জ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের হাজার হাজার বিঘা জমির নানা ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হবে বলে এলাকাবাসী জানান ।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com