রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

পলাশবাড়ীতে প্রধান শিক্ষকদের দায়িত্ব অবহেলায় শিক্ষার্থী উপস্থিতি নিম্নমুখী

পলাশবাড়ীতে প্রধান শিক্ষকদের দায়িত্ব অবহেলায় শিক্ষার্থী উপস্থিতি নিম্নমুখী

পলাশবাড়ী প্রতিনিধিঃ পলাশবাড়ীর আমলাগাছী ২নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব অবহেলায় অভিভাবকেরা বিদ্যালয় হতে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। গত ৯ অক্টোবর ১২.৫০ মিনিটে সরেজমিনে বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষক শফিউল ইসলামের সাথে কথা বললে জানা যায়, ওই বিদ্যালয়ে মোট ৫ জন শিক্ষক রয়েছে। তার মধ্যে সহকারী শিক্ষক ফজলুল হক মন্ডল ডেপুটিশনে রয়েছে। তবে ৪ জন শিক্ষককে উপস্থিত পাওয়া যায়। উক্ত বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণীর মোট ৫৭ জন শিক্ষার্থী উপবৃত্তির আওতায়। ওই দিন সকালে তৃতীয় শ্রেণির ক্লাস চলাকালে ১১ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩ জন শিক্ষার্থীকে উপস্থিত পাওয়া যায়। তবে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি কমের ব্যাপারে প্রধান শিক্ষককে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন অভিভাবকদের কাছে মোবাইল করেছি এবং বাড়ী বাড়ী গিয়েছি কেউ ঢাকায় আবার কেউ আত্মীয়ের বাড়ীতে গিয়েছে এবং দূর্গা পূজার কারণেই শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসেনি। শিক্ষার্থী না এলে তাতে আমার কি? অন্যের সন্তানের পড়া হোক আর না হোক তাতে আমার যায় আসেনা। প্রধান শিক্ষকের এই উক্তি ব্যাপারে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আঃ হান্নান মন্ডলের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, আমি মিটিং-এ প্রধান শিক্ষকের ব্যাপারে আলোচনা করেছি। অপরদিকে কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম রামচন্দ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গত ১০ অক্টোবর সকাল ১১.১৫ মিনিটে গিয়ে বিদ্যালয়ে ৪ জন শিক্ষক উপস্থিত পাওয়া যায়। সকাল ৯.৩০ ঘটিকা হতে দুপুর ১টা পর্যন্ত তৃতীয় শ্রেণি এবং ১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস হওয়ার কথা। এ সময় পঞ্চম শ্রেণির ৪ জন শিক্ষার্থী পাওয়া যায় তবে তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী শূন্য রয়েছে। এব্যাপারে প্রধান শিক্ষক তৌহিদ জানান, সামনে দূর্গাপূজা। এ কারণে শিক্ষার্থীরা কেনাকাটা করার জন্যই ব্যস্ত রয়েছে। সে কারণে তারা বিদ্যালয়ে আসেনি। এলাকার অভিভাবক মহল সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করছেন।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com