বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৯ পূর্বাহ্ন

পলাশবাড়ীতে পুকুর খনন করায় জমিতে রোপা আমন চাষ হুমকি মুখে

পলাশবাড়ীতে পুকুর খনন করায় জমিতে রোপা আমন চাষ হুমকি মুখে

পলাশবাড়ী প্রতিনিধিঃ পলাশবাড়ীতে পানি নিষ্কাশনের জায়গায় পুকুর খনন করায় ১৫০ একর জমি জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে সাধারণ কৃষকদের রোপা আমন চাষ হুমকি মুখে। অভিযোগ ও সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, পলাশবাড়ী উপজেলার মহদীপুর ইউনিয়নের গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কের দোকান ঘর নামক স্থান হতে কেত্তারপাড়া যাওয়ার রাস্তায় রায়হান মিয়ার বাড়ী সংলগ্ন পানি নিষ্কাশনের জন্য দুইটি কালভাট নির্মাণ করা হয়। একটি কালভাটের মোকায় মাটি ভরাট করে রায়হান মিয়া বাড়ী নির্মাণ করায় অপর একটি কালভাট দিয়ে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন হতো। অপর কালভাটের পাশের্^ কেত্তারপাড়া গ্রামের আব্দুস ছাত্তারের পুত্র রানা মিয়া জনৈক ছাইদুর রহমান ও বাদশার জমি বর্গা নিয়ে এক বৎসর পূর্বে মাছ চাষের জন্য পুকুর খনন করে। বর্তমানে পুকুর খননের পর থেকে বৃষ্টি হলেই ঐ এলাকায় ১৫০ একর জমি জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে রোপা আমন চাষে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসী জানায়, ঐ সকল জমিতে ইতিপূর্বে বৎসরে দুই বার ধান চাষ হতো। কিন্তু পুকুর খননের পর থেকেই জমি পানি জমে থাকার ফলে ইরি বোরা ধান কাটাই-মারাইয়ের সময় শ্রমিকদের অধিক মজুরী দিতে হয় এবং রোপা আমন ধান চাষে বর্তমানে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এব্যাপারে ১১০ জন কৃষকের স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বরাবরে জমা দেন। অভিযোগকারীরা জমির ফসল রক্ষার্থে সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে জোর দাবী জানিয়েছেন ।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com