শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১০:০২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
সাধারণ মানুষ নিজেরাই যাতে নিজেদেরকে সাবলম্বী করে তুলতে পারে এজন্য তাদেরকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে -ডেপুটি স্পীকার কুপতলায় ২য় শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের চেষ্টায় মামলা দায়ের গাইবান্ধায় কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম ॥ গ্রেফতার ১ পলাশবাড়ীতে ধর্ষণের চেষ্টা মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামী গ্রেফতার গাইবান্ধায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত ফ্রান্সে মুহাম্মাদ (সাঃ) এর ব্যাঙ্গাত্বক চিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ শিক্ষক নিহত সাঘাটায় নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত চরাঞ্চলের মানুষের দুঃখ দূর্দশা লাঘবের জন্য চর উন্নয়ন বোর্ড করা দরকার -ডেপুটি স্পীকার প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১৬ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণঃ ধর্ষক গ্রেফতার

পলাশবাড়ীতে ছোট ভাই কর্তৃক প্রতারণা করে বড় ভাইয়ের জমি লিখে নেওয়ায় তদন্ত

পলাশবাড়ীতে ছোট ভাই কর্তৃক প্রতারণা করে বড় ভাইয়ের জমি লিখে নেওয়ায় তদন্ত

পলাশবাড়ী প্রতিনিধিঃ পলাশবাড়ীতে ছোট ভাই কর্তৃক বড় ভাইয়ের কবলা খরিদকৃত জমি প্রতারণা করে লিখে নিয়ে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করার পায়তারা। বড় ভাই কর্তৃক লিখিত অভিযোগ দাখিলের সাত মাস পর অভিযোগের তদন্ত অনুষ্ঠিত।
জানা যায়, পলাশবাড়ী উপজেলার ৮ নং মনোহরপুর ইউনিয়নের নিমদাসের ভিটা পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত রইছ উদ্দিনের পুত্র আঃ রশিদ তার বড় ভাই আঃ রহমানের কবলা খরিদকৃত জমিতে ৭০ বছরের পুরাতন বসতবাড়ীর জায়গায় দলিল লেখকের সাথে যোগসাজোসে বড় ভাইকে প্রতারণার ফাদে ফেলে মাদ্রাসার নামে জমি লিখে নেওয়ার ঘটনায় বড় ভাই আঃ রহমান কর্তৃক প্রতিকার চেয়ে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৮/০২/২০২০ইং তারিখে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এনায়েত হোসেন উক্ত প্রতারণা ও যোগসাজোসী নামকরণ সংক্রান্ত মাদ্রাসায় সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক সঠিক তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য উপজেলা মাধ্যমিক অফিসারকে তদন্ত করার নির্দেশ প্রদান করেন। গত ১৭ সেপ্টেম্বর বেলা ১২ টার সময় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাহাতাব হোসেন, উক্ত মাদ্রাসার সভাপতি ও সকল শিক্ষকদের উপস্থিতিতে তদন্ত অনুষ্ঠানে ওই মাদ্রাসার নামে কোন অবকাঠামো তারা দেখাতে পারে নাই। কাগজ-কলমে অফিস সুত্রে জানা যায়, উক্ত মাদ্রাসার নামে সরকারী পাঠ্যপুস্তক উত্তোলণ করা হয়েছে এবং প্রতি বছরই কাগজে-কলমে পরীক্ষা দেখানো হয়ে আসছে। যে জায়গায় ঘর নেই, বিদ্যালয়ের নামে কোন কার্যক্রম নেই, অথচ কাগজে কলমে প্রতিষ্ঠানটি অব্যাহত থাকায় এলাকায় সাধারন মানুষের মাঝে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। তবে, উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার মাহাতাব হোসেন মাদ্রাসায় কোন অবকাঠামো পান নাই বলে জানান। এবং ওই মাদ্রাসায় পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হয় নাই।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com