শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন

পলাশবাড়ীতেঅনিয়মে জড়র্জিত প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

পলাশবাড়ীতেঅনিয়মে জড়র্জিত প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

পলাশবাড়ী প্রতিনিধিঃ পলাশবাড়ীর মাঠেরবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বেশকিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারি বরাদ্দের টাকা নামমাত্র কাজ করে বাকী টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, পলাশবাড়ী উপজেলায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে উপজেলায় ভোট কেন্দ্র হিসেবে ২৩ বিদ্যালয়ের অনুকুলে ৩২ লক্ষ ৯০ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। উক্ত বরাদ্দের বেশকিছু বিদ্যালয়ে শিক্ষকগণ নিজের খেয়াল খুশিমত স্টিমিট তৈরি করে উপজেলা সহকারি প্রকৌশলীল কাছ থেকে স্বাক্ষর নিয়ে নামমাত্র কাজ বাকী টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে।
১২ মার্চ মাঠেরবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টিমিট অনুযায়ী ৪টি ভ্যান এবং ৩ চেয়ার ক্রয় করার কথা থাকলেও একটি চেয়ার ক্রয় করা হয়েছে বাকী দু’টি চেয়ার আজও কেনা হয়নি বলে প্রধান শিক্ষক মাহবুবা খাতুন জানান। তবে তিনি বলেন, টাকা রয়েছে যেকোন সময় কেনা হবে। ইতিপূর্বে উপজেলার হরিণাবাড়ী ১নং, মাঠেরবাজার, খামার মাহমুদপুরসহ কয়েকটি বিদ্যালয়ের উক্ত বরাদ্দের টাকা নামমাত্র কাজ করে বাকী টাকা আত্মসাৎ করার খবর জাতীয়-আঞ্চলিক পত্রিকায় প্রকাশিত হলেও আজও কোন বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি উপজেলা শিক্ষা অফিস।
এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার বেল্লাল হোসেন জানান, পর্যায়ক্রমে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
অপরদিকে; ১২ মার্চ ঝালিঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৯.৪০ মিনিটে পতাকা বিহীন তালাবদ্ধ অবস্থায় বিদ্যালয়ের সামনের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বই-খাতা নিয়ে দাড়ানো অবস্থায় দেখা যায়। ৯.৪৫ মিনিটে সহকারি শিক্ষক আফরোজা বেগম উপস্থিত হয়ে তড়িঘড়ি করে পতাকা উত্তোলন করে এবং বিভিন্ন স্থানে ফোন করতে দেখা যায়। ৯.৫৫ মিনিটে সহকারি শিক্ষক বিপাশা রানী এবং ৯.৫৭ মিনিটে মাহানুর খাতুনকে উপস্থিত হতে দেখা যায়। তবে ওই বিদ্যালয়ে মোট ৫ শিক্ষক রয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়, সকল শিক্ষক মহিলা হওয়ায় শিক্ষার গুণগত মান মুখ থুবড়ে পড়েছে। অভিভাবকমহল তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com