মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪০ অপরাহ্ন

ধাপেরহাটে রাতের আধারে আলু ক্ষেত নষ্ট করেছে দূর্বৃত্তরা

ধাপেরহাটে রাতের আধারে আলু ক্ষেত নষ্ট করেছে দূর্বৃত্তরা

সাদুল্লাপুর (ধাপেরহাট) প্রতিনিধিঃ সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট আলীনগর গ্রামে রাতের আধারে দূর্বৃত্তরা আলু ক্ষেত নষ্ট করে প্রায় ৮ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করেছে। এ কেমন শত্রুতা, কিছুতেই মেনে নিতে পারছেনা এলাকাবাসী। সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, গত ২২ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে গাইবান্ধার কৃষি পল্লীখ্যাত সাদুল্যাপুরের ধাপেরহাট আলী নগর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। ঐ গ্রামের আলু চাষী কিয়ামত আলীর ছেলে মেহেদুল ইসলাম নিজের জমি জমা না থাকায় এন,জিও থেকে লোন নিয়ে ২ লাখ টাকায় পরের জমি বন্দক নিয়ে ১২০ শতক জমিতে চলতি মৌসুমে, উন্নত মানের ব্রাকের আলু বীজ। উচ্চমুল্যে ৮০;টাকা কেজি দরে ক্রয় করে জমিতে রোপন করে। আলুর গাছ গুলো সবেমাত্র গজে উঠেছে, আর এরই মধ্যে গত শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে কে বা কাহারা শত্রুতা হাসিল করতে তার সমস্ত আলুর জমি রাতের আধারে লাঙ্গলের ফলা দিয়ে চেষে বিনষ্ট করে ফেলে রেখে গেছে। সকালে আলুর জমিতে গিয়ে আলু ক্ষেত দেখতে পেয়ে কান্নায় জ্ঞান হারিয়ে ফেলে কৃষক। তার কান্না শুনে জমিতে যায় কৃষানী বধু রওশনআরা আলুর জমির এমন দৃশ্য দেখে জমিতে লুটে পরে কান্না আহাজারি করে বুক ফাটায়, তাদের চোখের জলে হতভম্ভ হয়ে যায় উপস্থিত লোকজন। ভুক্তভোগী আলু চাষী মেহেদুল জানান, প্রতিবেশী মুনছুর আলীর পুত্র দেলবার গংদের সাথে জমি বন্দক নেয়ার কারনে তাদের শত্রুতা চলছে এবং ফসল নষ্ট করার জন্য হুমকি দিয়েছে। তাদের দারাই এমন ক্ষতি হয়েছে তার। কিছুতেই মেনে নিতে পারছেনা এমন ক্ষতি। ১২০ শতাংশ জমির মধ্যে ৮৬ শতক জমির আলু তার ৬শ মন আলু উৎপাদন হতো। যার মুল্য ৮ লক্ষ টাকা। এ ব্যাপারে ঐ এলাকার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে আমরা ক্ষতি গ্রস্থ কৃষকের জমি পরিদর্শন করেছি, এই মুহুর্তে তাকে শান্তনা দেয়া ছারা আর কিছুই করার নাই ,তবুও আমি চেষ্টা করবো উদ্ধতন কর্তার সাথে কথা বলে কিছু করতে পারি কিনা।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com