শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

ধাপেরহাটে বর আছে কনে নাই আরবী পড়তে গিয়ে হুজুরের সাথে ছাত্রী নাই

ধাপেরহাটে বর আছে কনে নাই আরবী পড়তে গিয়ে হুজুরের সাথে ছাত্রী নাই

ধাপেরহাট (সাদুল্লাপুর) প্রতিনিধিঃ সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট থেকে গত দু’দিনে নববধুসহ এক ছাত্রী হুজুরের সাথে উধাও হয়েছে।
জানা গেছে, নিজপাড়া গ্রামে তৈয়ব আলীর পুত্র আনোয়ার হোসেনের ৫ মাসের নব-বিবাহিতা স্ত্রী সম্পা বেগম গত শনিবার রাতে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে উধাও হয়েছে। সম্পা বেগম পীরগঞ্জের রসুলপুর গ্রামের শাহীন মিয়ার কন্যা। গত ৩ সেপ্টেম্বর সম্পা পিতার বাড়ী রসুলপুরে বেড়াতে এসে পরকিয়া প্রেমিক বগুড়া এলাকার আশরাফ আলীর পুত্র আশিক (২০) এর সাথে ঘর বাধার স্বপ্নে উধাও হয়েছে। এ ব্যাপারে নব বধুকে হারিয়ে আনোয়ার হোসেন ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। উল্লেখ্য যে, উক্ত নব বধু সম্পা বেগমের মা হাসিনা বেগম ইতিমধ্যে ৩/৪জন স্বামী পাল্টিয়ে বর্তমানে তার পিতার বাড়ীতে রয়েছেন।
অপর দিকে গত রবিবার রাতে ধাপেরহাট আমবাগান এলাকার জনৈক্য ব্যক্তির কন্যা কলেজ পড়–য়া ছাত্রী শিরিনা আক্তার আরবী পড়ানোর গৃহ শিক্ষক খোদাবকস গ্রামের আব্দুস সোবহান ওরফে শাহাবুদ্দিন হুজুরের সাথে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছেন। জানা গেছে, পরিবারের লোকজন শিরিনাকে আরবি অথাৎ কোরআন শেখার জন্য ঐ হুজুরকে বাড়ীতে এসে আরবী পড়ানোর জন্য নিয়োগ করেন। কিন্তু ঐ হুজুর তার বোনকে আরবি পড়াতে গিয়ে বিভিন্ন প্রলোভনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করার উদ্দেশ্যে বাড়ী হইতে পালিয়ে নিয়ে যায়। আরবি হুজুরের ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যতা সৃষ্টি হয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com