শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

ধাপেরহাটে কৃষকের শিম গাছ কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা

ধাপেরহাটে কৃষকের শিম গাছ কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা

ধাপেরহাট (সাদুল্লাপুর) প্রতিনিধিঃ সাদুল্লাপুরে এক হতদরিদ্র কৃষকের ১ বিঘা জমির ধরন্ত সীম গাছ রাতের আঁধারে কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। গত শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নের তিলকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সীম গাছ কাটা খবরে ভুক্তভোগী পরিবারে চলছে স্বজন হারানোর মত বুকফাটা আর্তনাদ। উপজেলার তিলকপাড়া গ্রামের আকবার আলী ওরফে বাটু মিস্ত্রীর ছেলে কৃষক রাজ্জাক (৪৫)। নিজের সামান্য জায়গা ও অন্যের জমি লিজ নিয়ে চাষাবাদ করে সংসার চালান তিনি । চলতি মৌসুমে ধারদেনা করে ১ বিঘা জমিতে সীম চাষ করেন। ইতোমধ্যে সীম উঠা শুরু করেছে। কিন্তু গত শুক্রবার দিবাগত রাতে কে বা কারা ওই কৃষকের সব সীম গাছ কেটে দিয়েছে। সকালে কৃষক সীম ক্ষেতে কাজ করতে এসে এই দৃশ্য দেখতে পান। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার কৃষকরা জমিতে ছুটে যান এবং দৃশ্য দেখে হতবাক হয়ে পড়েন। এ সময় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন ভুক্তভোগী কৃষক ও তার স্ত্রী। তাদের আর্তনাদে অনেকের চোখের পাঁপড়ি ভিজে উঠে। একই গ্রামের কৃষক আমজাদ আলী, আইনুল হক, সহিদুল ইসলামসহ অনেকে জানান, ক্ষতিগ্রস্থ্য কৃষক রাজ্জাক অত্যন্ত নিরিহ প্রকৃতির মানুষ। তার কোন শত্রু থাকতে পারে আমরা বিশ্বাস করিনা। কিন্তু তার যে ক্ষতি হয়েছে সেটি কখনও পুশিয়ে নেয়া সম্ভব নয়।
ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক রাজ্জাক বলেন, ধার দেনা করে ১ বিঘা সীমের চাষ করেছি, এ পর্যন্ত প্রায় ২৫ হাজার টাকা ব্যয় হয়ে গেছে। গত হাটে জমি থেকে ১৫ কেজি সীম তুলে হাটে ১৫’শ টাকা বিক্রি করেছি, আগামীকাল সোমবার হাটে কমপক্ষে ২৫ কেজি সীম উঠত কিন্তু আমার সব শেষ করে দিয়েছে। কি ভাবে দেনা পরিশোধ করবো আর কিভাবেই পরিবার পরিজন নিয়ে বেঁচে থাকবো এই চিন্তায় এখন দিশেহারা। এ ওয়ার্ডেও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য রেহেনা বেগম জানান, ঘটনাটি খুবই দুঃখ জনক আমি সরেজমিনে জমিতে গিয়ে তার উপরে ফেলা গাছগুলি দেখেছি, এর একটা সুষ্ট বিচার হওয়া প্রয়োজন। ধাপেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম নওশা বলেন, ঘটনাটি লোকমুখে আমি শুনেছি। বিষয়টি আসলেই ন্যাক্কারজনক।

 

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com