রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম

গোবিন্দগঞ্জে যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

গোবিন্দগঞ্জে যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

স্টাফ রিপোর্টারঃ ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ এলাকায় ছয় লেইনের নির্মাণকাজ থমকে আছে। এতে উত্তরের জেলাগুলোতে প্রবেশের সময় ওই এলাকায় যানজট যেন নিত্যদিনের সঙ্গী; উপজেলার পান্তাপাড়া থেকে গোবিন্দগঞ্জ মহিলা কলেজ পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকায় মহাসড়কের দুধারে জায়গা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এখনও বুঝে পায়নি। ফলে সড়ক সম্প্রসারণের কোনো কাজ শুরু হয়নি। কবে নাগাদ শুরু হবে তা নিয়েও রয়েছে ধোঁয়াশা।
সেখানে গাড়িগুলোকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে। এতে ভোগান্তির মধ্যে পড়েছেন পরিবহন চালক ও যাত্রীরা।
এ পথে চলাচলকারী সৌখিন পরিবহনের চালক আব্দুল মোত্তালিব বলেন, সব মিলিয়ে গত মঙ্গলবার থেকে গোবিন্দগঞ্জে যানজট তীব্র আকার ধারণ করতে শুরু করেছে। গত বুধবার হয়ত আরও ভয়াভয় আকার ধারণ করবে।
গাইবান্ধা সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ জানায়, ঢাকা-রংপুর জাতীয় মহাসড়কের ৩২ কিলোমিটার পড়েছে গাইবান্ধা জেলায়। দক্ষিণে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফাঁসিতলা থেকে উত্তরে সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট পর্যন্ত মহাসড়কটি বিস্তৃত।
দক্ষিণ এশিয়ার দেশশুলোর মধ্যে আন্ত:যোগাযোগে একটি মহাপরিকল্পনা হাতে নেয় সরকার। প্রকল্পের নাম দেয় সাউথ এশিয়ান সাব-রিজিওয়ানাল ইকোনমিক করপোরেশন (সাসেক)। প্রকল্পের আওতায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়ককে ছয় লেনে উন্নীত করার কাজ হাতে নেওয়া হয়।
গাইবান্ধায় ৩০ কিলোমিটার অংশের কাজের দায়িত্ব পায় চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘চায়না স্টেট কনস্ট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন-সিএসসিইসি’। এ অংশের কাজের জন্য ২০১৮ সালে দরপত্র আহ্বান করা হয়। ২০১৯ সালের জুলাইয়ে কাজ শুরু হয়। সময়সীমা অনুযায়ী, ২০২৩ সালে সেপ্টেম্বরে কাজ শেষ করার কথা ছিল। কিন্তু এখনও তা শেষ হয়নি।
চালকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এই মহাসড়ক দিয়ে উত্তরের গাইবান্ধা, রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, লালমনিরহাট ও কুড়িগ্রামের পথে যানবাহন চলাচল করে।
ঢাকা-রংপুর জাতীয় মহাসড়কের ছয় লেনের কাজ সিরাজগঞ্জ, বগুড়া ও রংপুর অংশে মোটামুটি শেষ হয়েছে। ফলে ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ছেড়ে যানবাহন খুব দ্রুত গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শহরে ঢুকে পড়ে। আবার দিনাজপুর-রংপুরসহ উত্তরের আট জেলার যানবাহন দ্রুত গতিতে গোবিন্দগঞ্জ শহরে চলে আসে।
গাইবান্ধা থেকে ঢাকায় যাতায়াতকারী বিসমিল্লাহ পরিবহনের চালক রফিকুল ইসলাম বলেন, গোবিন্দগঞ্জের পান্তাপাড়া থেকে মহিলা কলেজ পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার অংশের ছয় লেনের সম্প্রসারণের কাজ এখন শুরু হয়নি। এই অংশটুকুর সড়ক বেশ সরু অর্থাৎ দুই লেইনের। এতে করে উভয় দিক থেকে আসা যানবাহনের প্রচ- চাপে ভয়াভয় যানজটের সৃষ্টি হয়।
এ ব্যাপারে হাইওয়ে পুলিশের রংপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার হরেশ্বর রায় বলেন, গোবিন্দগঞ্জের যানজটের বিষয়টি পুলিশ অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। এরই মধ্যে হাইওয়ে পুলিশ অনেক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কাজ শুরুর প্রায় সাড়ে তিন বছরে ২৫ কিলোমিটার অংশে মহসড়কের পাশের জমি বুঝে পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। সম্প্রতি আরও ৩ কিলোমিটার অংশে জমি বুঝে পেয়েছে। কিন্তু বাকি দুই কিলোমিটার অংশের জমি এখনও বুঝিয়ে দেয়নি জেলা প্রশাসনের ভূমি (এলএ) শাখা।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

 

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com