বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন

গোবিন্দগঞ্জে মা ও মেয়েকে ডেকে এনে গণধর্ষণঃ ৩ জনের যাবজ্জীবন

গোবিন্দগঞ্জে মা ও মেয়েকে ডেকে এনে গণধর্ষণঃ ৩ জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টারঃ গোবিন্দগঞ্জে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে গুপ্তধন পাইয়ে দেয়ার প্রলোভন দিয়ে মা ও মেয়েকে গণ ধর্ষণের মামলায় গতকাল মঙ্গলবার তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। গাইবান্ধার নারী ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মোঃ আব্দুর রহমান এই রায় প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে পাঁচ আসামিরা উপস্থিত ছিলেন।
সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার গোসাইপুর গ্রামের মমতাজ উদ্দিনের ছেলে বেলাল হোসেন, একই গ্রামের বদিউজ্জামান মিয়ার ছেলে এমদাদুল হক ও পার্শ্ববর্তী শ্যামপুর পার্বর্তীপুর গ্রামের দুদু মিয়ার ছেলে খাজা মিয়া। এছাড়া দুই আসামিকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়েছে। তারা হলো- একই উপজেলার সাতগাছি হাতিয়াদহ গ্রামের আবদুল কাদেরের ছেলে আজিজুল ইসলাম ও সুন্দাইল গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে আসাদুল ইসলাম।
মামলার সুত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ১২ মে আসামিরা জামালপুরের সরিষাবাড়ি উপজেলার বাসিন্দা মা ও মেয়েকে ফোন করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ডেকে আনেন। তারা জ্বিনের বাদশাহ পরিচয়ে মা ও মেয়েকে গুপ্তধন পাইয়ে দেয়ার লোভ দেখান। লোভে পড়ে ভুক্তভোগী মা ও মেয়ে ওই রাতেই গোবিন্দগঞ্জে চলে আসে। পরে প্রতারক চক্রটি মা ও মেয়েকে উপজেলার আমনাথপুর বালুয়ার নির্জন এলাকায় নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। পরদিন ভুক্তভোগীরা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে পুলিশ সেসময় ৫ জনকে গ্রেফতার করে। মামলার দীর্ঘদিন সাক্ষ্য গ্রহণের পর গতকাল মঙ্গলবার বিচারক এ রায় ঘোষণা করেন।
এব্যাপারে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডঃ ফারুক আহমেদ প্রিন্স জানান, ২০১৮ সালের ১২ মে মা ও মেয়েকে গুপ্তধন দেয়ার কথা বলে জামালপুর জেলা থেকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ডেকে আনে আসামিরা। পরে তাদের উপজেলার আমনাথপুর বালুয়া এলাকায় নিয়ে ধর্ষণ করেন তারা।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com