শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২:১০ পূর্বাহ্ন

গোবিন্দগঞ্জে জোরপূর্বক কালভার্ট নির্মাণের অভিযোগ

গোবিন্দগঞ্জে জোরপূর্বক কালভার্ট নির্মাণের অভিযোগ

গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধিঃ গোবিন্দগঞ্জে কৃষকের ফসলি জমি নষ্ট করে পূর্বে স্থাপিত কালভার্ট এর জায়গায় কালভার্ট পুনঃ নির্মাণ না করে ভিন্ন জায়গায় কালভার্ট নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে এমএম বিল্ডার্স নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন স্থানীয় কৃষক অংকুর দেবনাথ।
জানা গেছে, সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের অধীনে গোবিন্দগঞ্জ-ঘোড়াঘাট আঞ্চলিক সড়কে উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের তরফকামাল শিয়ালগাড়া নামকস্থানে পানি নিষ্কাশনের জন্য কালভার্ট ছিল। সম্প্রতি গোবিন্দগঞ্জ- ঘোড়াঘাট আঞ্চলিক সড়ক প্রশস্থ করণের জন্য এমএম বিল্ডার্স নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ পায়। সড়ক প্রশস্থকালে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি তাদের কাজের সুবিধার্থে নির্ধারিত জায়গা থেকে প্রায় ২০০ মিটার দূরে কালভার্ট নির্মাণের প্রস্তুতি নেয়। এখানে কালভার্ট নির্মাণ হলে ফসলি জমি নষ্ট সহ জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে মর্মে জনৈক কৃষক অংকুর দেবনাথ জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের দপ্তর থেকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ব্যবস্থা গ্রহণের দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি স্থানীয় কিছু সাংবাদিক নামধারী টাউট-বাটপারকে ম্যানেজ করে তাদের ইচ্ছা মত জায়গায় কালভার্ট নির্মাণের চেষ্টা করছে। এমতাবস্থায় ওই এলাকায় চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। ক্ষতির কবলে পড়বে এমন কৃষকরা- শক্ত অবস্থান নিয়েছে যে কোন মূল্যে অপরিকল্পিত স্থানে কালভার্ট নির্মাণ তারা রুখে দিবে।
এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপদের নির্বাহী প্রকৌশলী আসাদুজ্জামানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পূর্বে নির্মিত কালভার্টটির মুখ বন্ধ করে ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। যার কারণে পানি নিস্কাশনে সমস্যা হবে তাই আগের স্থান থেকে ২০০ মিটার দূরে কালভার্টটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
এদিকে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামকৃষ্ণ বর্মণ জানিয়েছেন, নতুন স্থানে কালভার্ট নির্মাণের কাজ স্থগিত রাখতে বলা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com