শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
চরাঞ্চলের মানুষের দুঃখ দূর্দশা লাঘবের জন্য চর উন্নয়ন বোর্ড করা দরকার -ডেপুটি স্পীকার প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১৬ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণঃ ধর্ষক গ্রেফতার হেড ফোন কানেঃ ট্রেনের ধাক্কায় প্রান গেলে যুবকের দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেয়ে আনন্দিত ভিক্ষুক শুকুর আলী ধাপেরহাটে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকারের যৌথ অভিযান ৪ আলু ব্যাবসায়ীর ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ধাপেরহাটে ১০ দিনে ৭টি বাসা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দুঃসাহসিক চুরি গাইবান্ধায় তিনদিনব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা সমাপ্ত ধর্ষণ মামলার আসামী মুক্তি পেয়ে বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি শহরের ডিবি রোড চলাচলের অযোগ্যঃ পথচারীদের দুর্ভোগ কিন্ডার গার্টেন স্কুলের শিক্ষকদের মানববন্ধন স্মারকলিপি প্রদান

গোবিন্দগঞ্জে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

গোবিন্দগঞ্জে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

SONY DSC

গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধিঃ গোবিন্দগঞ্জে অটো রিক্সা ছিনতাইয়ের মুল হোতা মনোয়ারসহ ওজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের পারইল দক্ষিণ পাড়া (গনার) গ্রামের মমতাজ আলীর ছেলে মনোয়ার হোসেন (৩৫), পৌর এলাকার শাহাপাড়া খলসি গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে মিন্নাছ আলী (৩৮) ও একই গ্রামের মৃত মহেন্দ্র মোহন্তের ছেলে চন্দন মোহন্ত(৩৮)।
থানা সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ অক্টোবর সন্ধ্যার দিকে মনোয়ার তার প্রতিবেশী মোবারক আলীর ছেলে অটো রিক্সা চালক জাহিদকে (১৪) শহরগছি চারমাথা এলাকা হতে তার অটোরিক্সা ভাড়া করে নিয়ে প্রথমে দিঘীরহাট বাজারে যায়। এরপর জাহিদকে নিয়ে সে আরও বেশ কয়েক জায়গায় ঘোড়া ঘুড়ি করে সময় ক্ষেপণ করে রাত আনুমানিক ৮টার দিকে শাখাহার- রোয়াগাঁও গ্রামের মাঝখানে ফাঁকা মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে হত্যার উদ্যোসে পিছন দিক থেকে জাহিদের গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে মৃত্যু নিশ্চিত মনে করে জাহিদকে রাস্তার পাশে ধানক্ষেতে ফেলে রেখে অটো রিক্সা ও মোবাইল ফোন নিয়ে মনোয়ার পালিয়ে যায়। কিন্তু জাহিদ মারা না গিয়ে কিছুক্ষণ পর তার জ্ঞান ফিরলে সে চিৎকার করায় আশপাশের লোকজন ঘটনা শুনে মনোয়ারকে ধরতে তাকে ধাওয়া করলে সে অটো রিক্সা ফেলে পালিয়ে যায়। পরে জাহিদের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এক পর্যায়ে বুধবার রাত ৭টার দিকে পাশ্ববর্তী জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলার সীমানাএলাকা থেকে মনোয়ারকে গ্রেফতার করে। পরে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার সহযোগী মিন্নাছ ও চন্দন মোহন্তকে তাদের নিজ বাড়ি থেকে ওই রাতেই গ্রেফতার করে পুলিশ। এসময় পুলিশ মনোয়ারের কাছ থেকে জাহিদের মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। এর আগেও একই কায়দায় শাখাহার ইউনিয়নের নুনু মিয়ার ভাগ্নে দিরবরের (১৬) অটোরিক্সা ছিনতাই করার পর দিলবরকে হত্যা করে অটো রিক্সাটি নিয়ে অন্যত্র বিক্রি করে।
গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান জানান, এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে হত্যা ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে থানায় পৃথক দু’টি মামলা দায়ের হয়েছে- গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী গ্রহণের জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com