সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন

গাইবান্ধা সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রদের বিক্ষোভ

গাইবান্ধা সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রদের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টারঃ সম্প্রতি যোগদান করা গাইবান্ধা সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুশান্ত কুমার দেবের সাথে নারী শিক্ষিকার অনৈতিক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে শাস্তি ও অন্যত্র বদলির দাবিতে বিক্ষোভ করেছে ওই প্রতিষ্ঠানের ছাত্ররা।
গতকাল দুপুরে বিভিন্ন শ্রেণির ছাত্ররা প্রতিষ্ঠানের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে অবস্থান নেয়। পরে জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুল আউয়াল অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস প্রদান করে এবং ক্লাসে ফেরার অনুরোধ করেন। তখন শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করে।
প্রসঙ্গত গত ২৩ জুলাই গাইবান্ধা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়া, অশ্লীল ভাষায় ছাত্রী ও অভিভাবকদের গালিগালাজসহ বিভিন্ন অনিয়ম এবং দুর্নীতির প্রতিবাদে ছাত্রী ও অভিভাবকরা সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করে। পরে তারা জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি প্রদান করে। বিভিন্ন পত্রিকা ও টেলিভিশনে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করে।
বিষয়টি তদন্তের দায়িত্ব পড়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুশান্ত কুমার মাহাতোর উপর। তিনি তখন শিক্ষা ও তথ্য এবং যোগাযোগ প্রযুক্তির দায়িত্বে ছিলেন। বর্তমানে তিনি উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছেন। তদন্ত প্রতিবেদনে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি বলে উল্লেখ করা হয়। এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।
এ কারণে শিক্ষা মন্ত্রনালয় তাঁকে গাইবান্ধা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে প্রত্যাহার করে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে তাঁকে গাইবান্ধা সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে বদলী করা হয়। সেখানে তিনি যোগদান করেন গত ৪ অক্টোবর। এর পরদিনই ৫ অক্টোবর প্রধান শিক্ষক পূর্বের কর্মস্থল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন মহিলা শিক্ষিকাসহ সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে তার কক্ষে অপ্রীতিকর অবস্থায় পাওয়া যায়। এরই প্রেক্ষিতে আজ ছাত্ররা প্রধান শিক্ষক সুশান্ত কুমার দেবের শাস্তি ও গাইবান্ধার বাইরে বদলির দাবিতে এই বিক্ষোভ করে।
এব্যাপারে গাইবান্ধা সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুশান্ত কুমার দেবের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ওই নারী আমার কন্যা সমতুল্য সহকর্মী। তাঁকে জড়িয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, গাইবান্ধা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে কিছু দুনীতিবাজ শিক্ষক, অভিভাবক-শিক্ষার্থীরা সেখানে আমার বিরুদ্ধে দুইমাস এক ধরণের আন্দোলন করেছে। এখানে নতুন করে যোগদানের পর আবার অন্য রকম আন্দোলন শুরু হয়েছে। নতুন কর্মস্থলে কেন শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করলো? এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, স্থানীয় কোচিং সেন্টারের মালিক ও কিছু দুনীতিবাজ শিক্ষক উসকানি দিয়ে ছাত্রদের আন্দোলনে নামিয়েছে।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com