বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

গাইবান্ধা পৌরসভায় অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধেঃ ৫ কর্মকর্তা-কর্মচারিকে কারণ দর্শাও নোটিশঃ একজন সাময়িক বরখাস্ত

গাইবান্ধা পৌরসভায় অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধেঃ ৫ কর্মকর্তা-কর্মচারিকে কারণ দর্শাও নোটিশঃ একজন সাময়িক বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টারঃ অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে গাইবান্ধা পৌরসভার ৫ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কারণ দর্শাও নোটিশ ও একজন কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। পৌর মেয়র মোঃ মতলুবর রহমান অভিযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।
কারণ দর্শাও নোটিশ প্রাপ্তরা হলো- নির্বাহী প্রকৌশলী এবিএম সিদ্দিকুর রহমান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা অমিতাভ চক্রবর্ত্তী, উপ-সহকারী প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম, ষাঁট লিপিকার মিলন কুমার সরকার, বাজার পরিদর্শক মোঃ লুৎফর রহমান। তারা সবাই যথাসময়ে কারণ দর্শাও নোটিশের জবাব কর্তৃপক্ষের কাছে দাখিল করেন। কিন্তু মধ্যে ষাঁট লিপিকার মিলন কুমার সরকারের জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় পৌর কর্তৃপক্ষ গত ২৫ এপ্রিল স্মারক নং গাঃপৌঃ সংস্থাপন-১/২০২১/৯৩৯ মূলে পৌরসভা কর্মচারি বিধিমালা ১৯৯২ এর ৪০, ৪১ বিধিমোতাবেক চাকুরি বিধিমালা ১৯৯২ এর বিধি ৪৬(১) তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে। শুধু তাই নয়, ইতোপূর্বে উক্ত মিলন কুমার সরকারকে আরও দু’বার কারণ দর্শাও নোটিশ প্রদান করা হয়েছিল। উল্লেখ্য, মিলন কুমার সরকার পৌরসভার রাজস্ব তহবিলের বিভিন্ন কাজের জন্য প্রায় ৮০ লাখ টাকা অগ্রিম গ্রহণ করলে তা সময়মত সমন্বয় না করার ফলে পৌর কর্তৃপক্ষ তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।
এদিকে গত ১৬ জানুয়ারি পৌর নির্বাচনের দিন পূর্বকোমরনই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট গ্রহণ শেষে র‌্যাব, পুলিশ প্রশাসনের উপর হামলা, অগ্নিসংযোগ ও গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় পৃথক ২টি মামলায় পৌরসভার দুই কর্মচারি মোঃ সাইফুল ইসলাম ও আইয়ুব আলী আসামি হয়। তারা গত ১৫ মার্চ আদালতে আত্মসমর্পন করলে বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান। পরদিন ১৬ মার্চ তারা কারাগারে থাকায় ওই দুই কর্মচারীকে চাকুরী বিধি অনুযায়ী তাদেরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এ বিষয়ে স্থানীয় সরকারের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় বিভাগের সিনিয়র সচিব, গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে অবহিত করা হয়েছে।
এব্যাপারে গাইবান্ধা পৌরসভার মেয়র মোঃ মতলুবর রহমান সুত্রে জানা গেছে, ওইসব কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অনিয়ম-দুর্নীতির সাথে জড়িত থাকায় তাদেরকে পৌরসভার বিধিমোতাবেক কারণ দর্শাও নোটিশ প্রদান ও একজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পৌরসভাকে অনিয়ম-দুর্নীতিমুক্ত ও আধুনিক আলোকিত পৌরসভা গড়তে ভবিষ্যতে কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী অনিয়ম-দুর্নীতির সাথে জড়িত হলে পৌরসভা কর্মচারী বিধিমালা ১৯৯২ এর বিধি ৪৬(১) প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com