রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম

গাইবান্ধা ক্লিনিকে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ে ত্রুটি ভুল চিকিৎসায় রোগীর মরণাপন্ন অবস্থা

গাইবান্ধা ক্লিনিকে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ে ত্রুটি ভুল চিকিৎসায় রোগীর মরণাপন্ন অবস্থা

স্টাফ রিপোর্টারঃ গাইবান্ধা ক্লিনিকে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ে মারাত্মক ত্রুটি করে সে মোতাবেক রোগীকে রক্ত প্রদান এবং ভুল চিকিৎসা করার পরিপ্রেক্ষিতে পৌর এলাকার প্রফেসর কলোনীর সাইফুল্লা ইবনে হালিমের স্ত্রী জেসমিন খানমের অবস্থা এখন মরণাপন্ন। এব্যাপারে ওই রোগীর স্বামী কর্তৃক গাইবান্ধা সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া সিভিল সার্জন বরাবরেও এব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, ২০১৬ সালের ৫ অক্টোবর জেসমিন খানমের সিজারের জন্য গাইবান্ধা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। এসময় তার রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা করে ‘ও নেগেটিভ’ হিসেবে রিপোর্ট দেয়া হয়। সে অনুযায়ী রক্ত দেয়া হয় এবং চিকিৎসা করা হয়। এতে সে দীর্ঘদিন যাবত নানা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয় এবং তার চিকিৎসা করতে গিয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরবর্তীতে এ বছর ৩ নভেম্বর আবারও ওই গাইবান্ধা ক্লিনিকে প্রসূতি জেসমিন খানমকে সিজারের জন্য ভর্তি করা হয়। পুনরায় ওই ক্লিনিকে তার রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ের জন্য পরীক্ষা করা হলে ‘ও পজেটিভ’ গ্রুপ হিসেবে রিপোর্ট দেয়া হয়। রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ের বিভ্রান্তির বিষয়টি নিয়ে উক্ত ক্লিনিকের স্বত্ত্বাধিকারী ডাঃ একরাম হোসেনের সাথে সাইফুল্লা ইবনে হালিম জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন এবং একপর্যায়ে সাইফুল্লার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে তার সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে তাকে নানাভাবে হুমকি প্রদান করেন।
গাইবান্ধা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ শাহরিয়ার উক্ত অভিযোগটি পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, এব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com