শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
সাদুল্লাপুরে প্রকাশ্যে বিনামূল্যের ভিজিএফ এর চাউল বেচাকেনা সুন্দরগঞ্জে কুরবানীর হাটে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষ গ্রেফতার আতঙ্কে চার গ্রামে ঈদের আনন্দ বিষাদে পরিণত পলাশবাড়ীতে চায়না দুয়ারী শয়তান জাল পুড়িয়ে দিলেন অবশেষে গাইবান্ধা প্রেসক্লাব সিলগালা রাজস্ব হারাচ্ছে সরকারঃ জব্দ হওয়া হাজারো যানবাহন খোলা আকাশের নিচে সুন্দরগঞ্জের ভিজিএফ চাল বিতরণ ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কামার সম্প্রদায় চাকু-ছোড়া ও বটির বানাতে ব্যস্ত সময় পাড় করছে খোলাহাটিতে আগুনে ৫ দোকান পুড়ে ছাই সুন্দরগঞ্জে পশুরহাটে পুলিশ জনতা-সংঘর্ষে ৪ রাউন্ড গুলি বর্ষন পুলিশসহ আহত ১০ গাইবান্ধা পৌর এলাকায় অপরিকল্পিত ভাবে কৃষি জমিতে বাড়ী নির্মান

গাইবান্ধায় ছাত্রদলের স্মারকলিপি প্রদান

গাইবান্ধায় ছাত্রদলের স্মারকলিপি প্রদান

স্টাফ রিপোর্টারঃ করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের বেতন মওকুফের দাবিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল গাইবান্ধা জেলা শাখা গতকাল রোববার জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। স্মারকলিপি প্রদান কালেন উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদল জেলা সভাপতি খন্দকার জাকারিয়া আলম জীম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ তারেকুজ্জামান তারেক, সিনিয়র সহ-সভাপতি রাজিউল আলম রনি, সহ-সভাপতি মোঃ মাহমুদুর রহমান রতন, যুগ্ম সম্পাদক মোঃ ইমাম হাসান আলাল, আইন বিষয়ক সম্পাদক মো. মুরাদ হাসান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শাওন প্রমুখ।
স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, ছাত্রদল সবসময় সাধারণ শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবির পক্ষে সোচ্ছার। করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় ২ মাসের অধিক সময় ধরে গাইবান্ধার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শুধু বাংলাদেশ নয়, পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও লক ডাউনের কারণে স্থবির হয়ে আছে বিশ্ব অর্থনীতি। বর্তমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের বেতনসহ পড়াশুনার খরচ চালানো তাদের অভিভাবকদের জন্য অত্যান্ত কষ্টকর। তাই বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতি সদয় হয়ে গাইবান্ধার সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীদের বেতনাদি মওকুফ করে দিলে তা হবে মানবতার জন্য এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।
সরকারি-বেসরকারি স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে টেলিভিশন, অনলাইনে কিছুটা কার্যক্রম চালু থাকলেও সেটি সবার কাছে পৌঁছাচ্ছে না। এক জরিপে দেখা গেছে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অনলাইন ক্লাস চালানো সম্ভব নয়। এমনকি বেসরকারি ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অনেক শিক্ষার্থীও অনলাইন ক্লাসে যুক্ত হওয়ার সাথে অসংগতি জানিয়েছে। এটির অন্যতম কারণ পাবালিক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এক তৃতীয়াং শিক্ষার্থী অর্থনৈতিভাবে অসচ্ছল পরিবার থেকে আসে।
এই সঙ্গে করোনা মহামারির বর্তমান পরিস্থিতিতে যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি রাজস্ব থেকে বেতন পায় না এবং ঐসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক/কর্মচারীদের বেতন-ভাতা শিক্ষার্থীদের বেতনের উপর নির্ভরশীল। সেসব প্রতিষ্ঠানের আর্থিক ঘাটতি সরকারি তহবিল থেকে পূরণের জন্য জোর দাবি জানান।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com