শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

আধুনিকায়ন হচ্ছে বোনারপাড়া রেলওয়ে ষ্টেশন

আধুনিকায়ন হচ্ছে বোনারপাড়া রেলওয়ে ষ্টেশন

স্টাফ রিপোর্টারঃ বোনারপাড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন সংস্কার ও আধুনিকায়ন করা চলছে। স্টেশনের মুল ফটকের দুপাশে যাত্রী ছাউনী, ওয়েটিং প্লাটফরম উচুকরণ, পুরো স্টেশন এলাকার নিরাপত্তায় দীর্ঘ প্রাচীর নির্মাণ ও নানা ধরনের সংস্কার সহ আধুনিকায়নের কাজ শেষ হলে দীর্ঘদিনের যাত্রী ভোগান্তি কমবে বলে জানিয়েছেন এলাকার ট্রেনযাত্রীরা। এতে স্বস্থি ফিরবে জেলার সাঘাটাসহ তিন উপজেলার যাত্রীদের মাঝে।
বোনারপাড়া রেলওয়ে সুত্রে জানা গেছে, স্টেশনের মুল প্লাটফরমের উপর ৬ শ’ ফুট ও অপর পাশে একশ ফুট যাত্রী ছাউনী, স্টেশনের উপরে ফুট ওভার ব্রিজটির শক্তি বৃদ্ধি করণ ও ছাউনী নির্মাণ, পুরো স্টেশন এলাকা সংরক্ষণ ও নিরাপত্তার লক্ষ্যে চারদিকে ৪৫শ’ ফুট সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, স্টেশন এলাকায় একটি যাত্রী সেড ও নিচু প্লাটফরম উঁচু করণসহ নানা উন্নয়ন মুলক কাজ চলছে। এসব কাজ সম্পন্ন হলে দীর্ঘদিনের যাত্রী ভোগান্তি কমবে। দিনরাত কাজ করছেন শ্রমিকরা। বোনারপাড়া রেলওয়ে উর্দ্ধতন উপসহকারী প্রকৌশলী আসলাম হোসাইন জানান, স্টেশনটি আধুনিকায়নের কাজ শেষ হলে যাত্রীসেবা বাড়বে। একটি সুন্দর ও ঝকঝকে রেলস্টেশন হবে এটি।
এদিকে, এলাকাবাসীর চলাচলের সুবিধার্থে বোনারপাড়া রেলওয়ে ষ্টেশনের সীমানা প্রাচীরে গেইট নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এ দাবিতে গতকাল মানববন্ধন করেছে তারা। স্টেশন এলাকায় এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন রেলওয়ে শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি হায়দার আলী সরকার, বোনারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাছিরুল আলম স্বপন, শাহ মোখলেছুর রহমান, ব্যবসায়ী রাজেশ প্রসাদ, বোনারপাড়া রেল জংশন রক্ষা স্থানীয় কমিটির সমন্নয়কারী জাহিদুল ইসলাম, ব্যবসায়ী মামুনুর রশিদ মামুন, জাতীয় শ্রমিক লীগ আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন, যঙ্গেস্বর বর্মন, আশরাফ আলী শেখ, ইব্রাহিম আলী, একরাম হোসেন, নুরে আলম সিদ্দিক প্রমুখ।
বক্তরা বলেন, বোনারপাড়া রেলওয়ে ষ্টেশন জংশনটি অতি গুরুত্বপূর্ন্য। সাঘাটা-ফুলছড়ি উপজেলার লোকজন অন্য কোন যানবাহন না থাকায় একমাত্র বোনারপাড়া ষ্টেশন থেকে ট্রেন যোগাযোগের মাধ্যমে রাজধানী সহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে থাকে। এ ষ্টেশনের রেলওয়ের উদ্ধতন কর্তৃপক্ষ বোনারপাড়া ষ্টেশন এলাকা নিরাপত্তার জন্য সীমানা প্রাচীর সহ উন্নয়ন কাজ এগিয়ে নেওয়ায় সাদুবাদ জানাই। তবে এই প্রাচীর নির্মানের ফলে পার্শ¦বতী ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্টানের প্রায় ৫ হাজার ছাত্র-ছাত্রী ও বাজারের শতাধিক ব্যবসায়ীরা দৈনন্দিন চলাচলের চরম বিগ্ন ঘটবে। ছাত্র-ছাত্রী ব্যবসায়ী সহ সর্বস্তরের জনগনের যাতা য়াতের সুবিধার জন্য প্রাচীরের উভয় পাশের্^ ৪টি গেইট নির্মাণের দাবি জানান বক্তারা।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com