শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১০:০১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
চরাঞ্চলের মানুষের দুঃখ দূর্দশা লাঘবের জন্য চর উন্নয়ন বোর্ড করা দরকার -ডেপুটি স্পীকার প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১৬ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণঃ ধর্ষক গ্রেফতার হেড ফোন কানেঃ ট্রেনের ধাক্কায় প্রান গেলে যুবকের দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেয়ে আনন্দিত ভিক্ষুক শুকুর আলী ধাপেরহাটে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকারের যৌথ অভিযান ৪ আলু ব্যাবসায়ীর ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ধাপেরহাটে ১০ দিনে ৭টি বাসা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দুঃসাহসিক চুরি গাইবান্ধায় তিনদিনব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা সমাপ্ত ধর্ষণ মামলার আসামী মুক্তি পেয়ে বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি শহরের ডিবি রোড চলাচলের অযোগ্যঃ পথচারীদের দুর্ভোগ কিন্ডার গার্টেন স্কুলের শিক্ষকদের মানববন্ধন স্মারকলিপি প্রদান

মাদকদের বিরুদ্ধে তরুণদের আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান ডেপুটি স্পিকারের

মাদকদের বিরুদ্ধে তরুণদের আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান ডেপুটি স্পিকারের

ঢাকা অফিসঃ জঙ্গিবাদ, সহিংসতা ও মাদকের বিরুদ্ধে তরুণদের সংঘবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মোঃ ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি। তিনি বলেছেন, আমাদের সমাজের মানুষের মাঝে সম্প্রীতির বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। আমরা এমডিজি অর্জনে সফলতা অর্জন করতে পেরেছি। একইভাবে এসডিজি অর্জনেও সফলতা অর্জন করতে হবে। এজন্য সমাজের কাউকে পেছনে ফেলে রাখা যাবে না। জাতি-ধর্ম-বর্ণগত কারণে কারো প্রতি বৈষম্য করা যাবে না। আর সমাজ থেকে মাদক ও জঙ্গিবাদ দূর করতে তরুণদেরই আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। গতকাল শনিবার রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ মিলনায়তনে সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে তরুণ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডেপুটি স্পিকার মোঃ ফজলে রাব্বী মিয়া এসব কথা বলেন। জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. বদিউল আলম মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- পার্লামেন্টারিয়ান ককাস অন চাইল্ড রাইটস কো-চেয়ারম্যান অ্যারোমা দত্ত, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম এবং সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য দেন জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সম্পাদক নাছিমা আক্তার জলি।
ডেপুটি স্পিকার মোঃ ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, তরুণদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ’৬৬-তে ছয়দফা আন্দোলন, ’৬৯ গণঅভ্যূত্থান এবং সত্তরের নির্বাচনে যদি আওয়ামী লীগ না জিততো, তাহলে কী আমরা স্বাধীন হতে পারতাম? পারতাম না। সেই সময় যদি তরুণেরা দেশ ও সমাজের কল্যাণে ভূমিকা পালন করতে পারে, ইতিহাস সৃষ্টি করতে পারে, তাহলে এখনকার তরুণেরা কেন দেশের কল্যাণে ব্যবহার হবে না, কেন তারা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে সম্প্রীতির বার্তা ছড়িয়ে দিতে পারবে না। আমি মনে করি, অবশ্যই পারবে।

নিউজটি শেয়ান করুন

© All Rights Reserved © 2019
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com